Breaking News
Home / শরীর স্বাস্থ্য / রসুনের মধ্যে লুকিয়া আছে সুস্থ থাকার চাবি-কাঠি ।

রসুনের মধ্যে লুকিয়া আছে সুস্থ থাকার চাবি-কাঠি ।

সাধারণত রসুন খাদ্যের স্বাদ বাড়ানোর জন্য ব্যবহার করা হয়, তবে গুটি কয়েক লোক জানেন যে রসুনের অনেক স্বাস্থ্য উপকারি উপাদান আছে ।
রসুনের সাথে আছে অ্যালিসিন নামক একটি প্রধান যৌগ, যা এ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টিভাইরাস, এন্টিফাঙ্গাল, এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট প্রোপার্টি যুক্ত। উপরন্তু, ভিটামিন এবং পৌষ্টিক উপাদান প্রচুর পরিমাণে আছে। ভিটামিন বি 1, বি 6, সি সহ, ম্যাঙ্গানিজ, ক্যালসিয়াম,কপার, সেলেনিয়াম এবং অন্যান্য উপাদান রয়েছে।
অনেক ব্যাধি প্রতিদিন এক কোয়া পরিমাণে রসুন খেলে দূরে থাকে। রসুন থেকে সর্বাধিক উপকার পেতে, কাঁচা রসুন খাওয়া উচিত। রান্না করার কারণে, এর কিছু স্বাস্থ্যকর উপাদান ধ্বংস হয়ে যায় ।
রসুন
রসুন খাওয়ার ৮ উপকারিতা-

১.হার্টের স্বাস্থ্যের জন্য রসুনের চেয়ে ভালো কিছু নেই রক্ত সঞ্চালন এবং কম কোলেস্টেরল বজায় রাখতে এটি সহায়ক। এইসব গুণাবলীগুলির কারণে, অনেক হৃদ রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। একটি সুস্থ হার্ট বজায় রাখার জন্য সকালে রসুনের একটি কাঁচা কোঁয়া খাওয়া উচিত।
২.উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের জন্য রসুন ব্যবহার খুব উপকারী কারণ এটি উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে। তাহলে উচ্চ রক্তচাপের রোগীদের অবশ্যই স্পষ্টভাবে রসুন খাওয়া উচিত ।
৩.ব্যাথার জন্য বিশেষ করে হাটুর ব্যাথায় খুব উপকারী। এর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এবং এন্টি-প্রদাহজনক বৈশিষ্ট্যগুলি বাতের ব্যথাতে অনেক সুন্দর ভাবে কাজ করে। আপনার খাদ্যের মেনুতে অবশ্যই কাঁচা রসুন রাখুন এতে আপনি বাতের ব্যথা থকে পরিত্রাণ পেতে পারেন।
৪.ইমুউনিটি পাওয়ার বৃদ্ধি করার জন্য রসুন একটি অমূল্য ঔষধ। ভিটামিন সি, বি 6 এবং অন্যান্য খনিজ পদার্থ ইমিউন সিস্টেমকে উন্নত করার জন্য কাজ করে। এছাড়াও, এটি সংক্রমণ প্রতিরোধে কার্যকর।
৫.ঠাণ্ডা এবং কাশির চিকিৎসার জন্য রসুন কার্যকর একটি ঔষধ । প্রাথমিক ভাবে শ্বাসপ্রশ্বাসের সমস্যা্য় রসুন খুব কাজ দেয় ।
৬.ফাঙ্গাল ইনফেক্সানএ রসুন খুব উপকারী জিনিস। মাঝে মাঝে পায়ের দুই আঙ্গুলের মাঝে ফাঙ্গাল ইনফেকসান হয় রসুন পিষে লাগালে অনেকটা উপকার পাওয়া যাবে । দৈনিক ডায়েটে কাঁচা রসুন থাকলে, এই ধরনের রোগগুলিকে অনেকটা দূরে রাখা সম্ভব ।
৭.রসুন দাতের ব্যাথাতেও খুবই কার্যকরী। ক্ষতিগ্রস্ত দাঁতগুলোতে রসুনের রস প্রয়োগ করলে দাতের ব্যাথা এবং সংক্রমণের ঝুঁকি হ্রাস পায়।
৮.রসুনের ব্যবহারের ফলে হজম ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করে। এতে প্রচুর পুষ্টি পাওয়া যায় যা হজম করতে সাহায্য করে। এই সাথে, অনেক গবেষণায় বলা হয়েছে যে রসুন ক্যান্সার প্রতিরোধেও সাহায্য করতে পারে। যারা রসুন ব্যবহার করেন, তাদের ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা অনেক কমে যায়।
তাহলে দেরি কিসের প্রতিদিন কাঁচা রসুন খান সুস্থ থাকুন ।
আরও পড়ুন: দাদ আর চুলকানি ভালো হবে দু-দিনে বাড়িতে বসেই ।

Check Also

চুল সাদা কেনো হয়

চুল সাদা হওয়ার কারণ কি? চুল কালো রাখার পদ্ধতি জেনে নিন

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: আমাদের শরীরের চুল এমন একটি অঙ্গ যা প্রতিনিয়ত বাড়তেই থাকে। সময়ের …