Breaking News
Home / জানা অজানা / ভূত যখন আপনার ভেতর বাস করে (পর্ব-১)

ভূত যখন আপনার ভেতর বাস করে (পর্ব-১)

সবার খবর, জানা অজানা ডেস্ক: ভূতের গল্পে আমরা অনেক অলৌকিক কথাই জানতে পারি । জানতে পারি অলৌকিক আত্মার নানবিধ কার্যকলাপ সম্পর্কে। কিভাবে একটি আত্মা একটি শরীর থেকে আরেকটি শরীরে নিজের অস্তিত্ব জানান দেয়। আর যে মানুষটির শরীরে সেই অলৌকিক আত্মা প্রবেশ করে, প্রচলিত আছে সে আত্মাটি নাকি অপর শরীরকে পরিচালিত করে। এই সমাজে কিছু ভৌতিক ঘটনার বিবরণ আমরা পাই ইন্টারনেট ও বিভিন্ন মিডিয়ার মাধ্যমে। যদিও বিজ্ঞানে এইসব গল্পের কোনো অস্তিত্ব নেই। কিন্তু আধুনিক লোক সমাজেও এই অলৌকিক গল্পগুলি আজও চুপিসারে হলেও বেস স্বীকৃত। আজ আমরা তুলে ধরব এমনই সত্য ঘটনা যা এই সমাজেই একদা ঘটে গেছে।
 মাইকেল টেলর
সময়টা ছিলো ১৯৭৪ সাল, ইংল্যান্ডে মাইকেল টেলর নামে এক ব্যাক্তি কিছু ভয়ানক ঘটনা ঘটাতে থাকেন। আওয়াজ করেন অদ্ভুত ধরনের। হঠাৎ এই ব্যাক্তির পরিবর্তন দেখে স্ত্রীর সন্দেহ হয়। কারণ তার মনে হয় টেলর তাকে সাংসারিক ও বৈবাহিক জীবনে ফাঁকি দিচ্ছেন। এই নিয়ে তাদের মাঝে তুমুল বাক্‌-বিতন্ডা শুরু হয় এবং এক পর্যায়ে মাইকেল টেলর জন্তুদের মতো অদ্ভুত শব্দ ও আচরণ শুরু করেন। তখন ব্যাপারটি আর স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকেনা। প্রতিবেশীরাও জানতে পারেন টেলরের এই পরিবর্তনের কথা। তখন তাঁরা অনুমান করেন টেলরের শরীরে খারাপ আত্মা প্রবেশ করেছে। স্ত্রী ও প্রতিবেশীদের চেষ্টায় তাকে স্থানীয় একটি চার্চে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে সারারাত টেলরের ওপর এক্সরসিজ্‌ম(আমরা প্রচলিত বাংলায় যাকে ঝাড়ফুঁক বলে জানি) চলে। পরের দিন সকালে চার্চের প্রিস্ট টেলরকে বলেন, তোমার শরীর থেকে বিগত রাত্রে চল্লিশটি খারাপ আত্মা বের করা হয়েছে। কিন্তু একটি ভয়ঙ্কর খুনি আত্মা তোমার শরীরে থেকে গেছে। তুমি সাবধানে থাকবে, নিজের খেয়াল রাখবে, স্ত্রীর খেয়াল রাখবে…
কিন্তু যে ভয় প্রিস্ট করেছিলেন তা ঘটে যায় মুহুর্তেই। টেলর বাড়ি ফিরেই স্ত্রীকে নৃসংস ভাবে হত্যা করলেন । তিনি তার শরীর থেকে প্রতিটি অঙ্গ প্রত্যঙ্গ আলাদা করে ফেলেন। এমনকি দুই হাত দিয়ে স্ত্রীর শরীরটিকে ছিড়ে-ফেড়ে ফেলেন। টেলর এখানেই থেমে থাকেননি, বাড়ির পোষ্য কুকুরটিকেও তখনই নির্মম ভাবে হত্যা করেছিলেন। পরে অবশ্য টেলরকে রক্ত মাখা অবস্থায় পুলিশ গ্রেপ্তার করে। আদালতের রায়ে মাইকেল টেলরের সাজা হয়। যেহেতু আইন আদালত ভূত প্রেত বা অলৌকিক আত্মায় বিশ্বাস করে না, তাই তাকে পাগল বলে চিহ্নিত করে পাগলা গারদে পাঠায়।
ঈশ্বর যেন আপনাদের দেহে এমন আত্মার না প্রবেশ ঘটায় বা তাদের সাথে সাক্ষাত না হয়। ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন, সাবধানে থাকবেন।
(চলবে)
আরও পড়ুন:আমেরিকার জানা উচিত পারমাণুর বোতামটি আমার টেবিলেই রয়েছে: কিম                                                                                                                                                                                     

Check Also

আব্দুল কালামের বাণী

দুঃখের দিনে আব্দুল কালামের এই তিনটি বাণী জীবন পাল্টে দিতে পারে

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: চলার পথের সকল মানব জীবনে সুখ দুঃখ উভয়কে সঙ্গী করে চলতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *