Breaking News
Home / খেলার খবর / নিউজিল্যান্ডের বিখ্যাত ক্রিকেটার ক্রিশ কেইনস ক্রমাগত বিস্ময়ের অন্ধকারে হারিয়ে গেছেন

নিউজিল্যান্ডের বিখ্যাত ক্রিকেটার ক্রিশ কেইনস ক্রমাগত বিস্ময়ের অন্ধকারে হারিয়ে গেছেন

খেলার খবর: ক্রিকেট এমন একটি খেলা যা এই উপমহাদেশে অত্যন্ত জনপ্রিয় সকলের কাছে। গাঁটের কড়ি খরচ করেও ক্রিকেট ম্যাচ দেখার জন্য মাঠে যেতে দ্বিধাবোধ করেনা এই উপমহাদেশের দর্শকরা। আমদের দেশে ক্রিকেট এমন একটি পেশা একবার আইপিএল অথবা দেশের হয়ে খেলতে পারলেই পৌঁছে যাওয়া যায় জনপ্রিয়তার শিখরে। বর্তমানে ক্রিকেটে টাকার ছাড়াছড়ি, সঙ্গে খ্যাতি ও সামাজিক মর্যাদাও। কিন্তু এমন অনেক খেলোয়াড় আছেন যাঁরা ক্রমাগত বিস্ময়ের অন্ধকারে হারিয়ে গেছেন। অথবা এই খেলোয়াড়রা এমন কিছু ভুল করেছেন যার কারণে তাঁদের দল থেকে বহিষ্কৃত হতে হয়েছে।
ক্রিশ ক্রেইনস
আমরা বিশ্বের এক মহান ক্রিকেটারের কথা বলছি, যিনি তার দেশের জাতীয় দলের হয়ে খেলেছেন একাধিক ম্যাচ। টেস্ট এবং ওয়ানডেতে মোট ৪১৯ টি উইকেট শিকার করেছেন। অনেক সময়ই একক দক্ষতায় দলকে জয় ছিনিয়ে এনে দিয়েছেন বিপক্ষ দলের হাতের মুঠো থেকে। এবার যদি সেই ক্রিকেটারের নামটি শোনেন, তবে চমকে উঠবেন। হ্যাঁ, আমরা নিউজিল্যান্ডের সেই বিখ্যাত অলরাউন্ডার ক্রিস কেইনস সম্পর্কেই বলছি। চমকানোর এখানেই শেষ নয়, আরও অনেক কিছু বাকি আছে। চলুন জেনে নিই ক্রিকেট থেকে অবসরের পর এই বিখ্যাত ক্রিকেটারের জীবন কোন খাতে বইছে।
ক্রিশের জীবনি
সম্ভবত আপনারা ভারতীয় দলের বিরুদ্ধে ক্রিসের মারাত্মক বোলিং অ্যাকশন দেখেছেন। ক্রিস একবার নিউজিল্যান্ডের অধিনায়কত্বও সামলেছেন। এই ক্রিকেটার একবার আইপিএলও খেলেছেন। কিন্তু আজ আপনি শুনে অবাক হবেন, এই বিখ্যাত অলরাউন্ডার ক্রিকেটারের জীবনে চলছে চরম আর্থিক অনটন। এই খবর ফলাও করে ছাপানো হয়েছিল বিশ্বের বিভিন্ন সংবাদপত্রগুলিতে।
ক্রিকেটারের বর্তমান পেশা
আইপিএলে তখন চেয়ারম্যান ললিত মোদি। সেই ক্রিসের ওপর ললিত মোদি ম্যাচ ফিক্সিংয়ের মতো গুরুতর অভিযোগ এনেছিলেন। কিন্তু অভিযোগকে চ্যালেঞ্জ করে কোর্টে যান ক্রিস। কোর্টে তার সতীর্থ ক্রিকেটার লু ভিনসেন্ট স্বীকার করে নেন যে, সে এবং ক্রিস কেইনস মিলে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের পরিকল্পনা করেছিলেন। ভিনসেন্ট আরও বলেন যে, ক্রিস আমাকে ম্যাচ ফিক্স করার জন্য উৎসাহ জাগিয়েছিল। ফলে অভিযুক্ত হয় ক্রিস ও লু ভিনসেন্ট। তাঁদের ক্রিকেট জীবনের পরিসমাপ্তি ঘটে এখানেই।

এখন ক্রিস কেইনসকে পরিবারের ভরণপোষণের জন্য বেছে নিতে হয়েছে রাস্তা ঝাড়ু দেওয়ার মতো কাজ। আর এয়ারপোর্টে নিয়মিত গাড়ি পরিস্কার করার কাজ। তাছাড়াও রাত্রিবেলায় বার-এ কাজ করে থাকেন তিনি।
ক্রিস কেইনস ২১৫ টি ওয়ানডে ম্যাচে ৪৯৫০ রান করেন ও ২০১ টি উইকেট পান। ওয়ানডে এবং টেস্ট মিলিয়ে মোট ৪১৯ টি উইকেটে ও মোট ৮২৭০ রানের মালিক ক্রিস। এই বিখ্যাত ক্রিকেটারের জীবন এখন রাস্তায় নেমে এসেছে।
আরও পড়ুন: ভারতীয় দলের দুঃসংবাদ! চোটের কারণে দল থেকে ছিটকে গেলেন এই খেলোয়াড়

Check Also

শেওয়াগ বললেন দলে একে না নিলে ৫-০ তে হারতে হবে ভারতকে

খেলার খবর: ভারত ও ইংল্যান্ডের মধ্যে পাঁচ টেস্ট ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট লর্ডসের মাঠে খেলা …