Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / সন্তানের স্পর্শে কোমা থেকে ফিরে এলেন স্বাভাবিক জীবনে: এক অশ্রুসিক্ত ভালোবাসার কাহিনী

সন্তানের স্পর্শে কোমা থেকে ফিরে এলেন স্বাভাবিক জীবনে: এক অশ্রুসিক্ত ভালোবাসার কাহিনী

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: কিছু কিছু ঘটনা আমাদের নাড়িয়ে দিয়ে যায় কখনও কখনও। এসব ঘটনা শোনার পরে আমরা আশ্চার্য হয়ে যাই। সত্যি-ই এ-ও কী সম্ভব? নিজের মনে-ই প্রশ্ন করি নিজেকে। আর সঙ্গে সঙ্গে ঈশ্বরের অস্তিত্ব সম্পর্কেও অসংখ্য প্রশ্ন জাগে মনের অভ্যন্তরে ।
এই প্রসূতি মা ডাক্তারকেউ বিস্মিত করে। কে জানে তিনি ২৩ দিন কোমায় থাকার পরে সন্তানের দেহের স্পর্শে ফিরে আসবেন স্বাভাবিক জীবনে। ব্রাজিলের আমান্ডা দ্য সিলভা। বয়স প্রায় ২৮ বছর। তিনি অনেকদিন ধরে এপিলেপ্সি বা মৃগী রোগে আক্রান্ত ছিলেন। যখন তিনি কোমায় চলে গেলেন, তখন তার পেটে ৮ মাসের সন্তান। স্বামীর সঙ্গে বাক-বিতন্ডা হওয়ায় তার ব্রেনে অত্যধিক চাপ পড়ে। সেই চাপ সহ্য না করতে পেরে কোমায় চলে যান আমান্ড। কিন্তু চিকিৎসকদের চিন্তা ছিল, কিভাবে পেটের সন্তানকে বাঁচানো যায়! চিকিৎসকদের কাছে এটি একটি নতুন অভিজ্ঞতাও ছিল।
ব্রাজিল
চিকিৎসকদের ধারণা ছিল, হয়তো মিসেস আমান্ড দ্য সিলভা সন্তান প্রসবের সময়ই মারা যাবেন! কিন্তু সঠিকভাবে তার সন্তান প্রসব হলো। যখন সন্তানের সঙ্গে এক সপ্তাহ যাবৎ মিসেস দ্য সিলভা কোনও ধরনের কমিউনিকেট করতে পারছিলেন না। সেই সময় ওই হাসপাতালের একজন নার্স, নাম ‘ফোবিয়ালা সা’ সন্তানটিকে মা মিসেস দ্য সিলভার বুকের ওপর শুইয়ে দিতে বলেন। সকলকে অবাক করে দিয়ে মিসেস দ্য সিলভা হার্ট বিট বেড়ে যায়, আর তার চোখের কোণ থেকে অশ্রু চুঁইয়ে পড়ে। কুড়িদিন পরে মিসেস দ্য সিলভা জ্ঞান ফিরে আসে, এবং বাড়ি ফিরে যান।
ব্রাজিল
নার্স ফোবিয়ালা সা জানান, এই ঘটনার কোনও বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা আমাদের কাছে নেই। কিন্তু একজন মায়ের সঙ্গে সন্তানের স্কিন টু স্কিন যে সম্পর্ক থাকে, তা কিন্তু কোনোদিনও ভুলে গেলে চলবে না।

মিসেস দ্য সিলভা জানান, আমার সন্তান প্রসবের কথা মনে নেই। প্রথম যে কথাটি আমার মনে আছে, তা হল, ভিক্টরকে(সন্তান) আমি জড়িয়ে ধরে আছি। আর আমার সন্তানের দেহ থেকে আমি একটি সুন্দর গন্ধ পাচ্ছি।

আমি আমার বাবাকে জিজ্ঞেস করলাম, এই সন্তান কি আমার? তারপরে আমার হাতটি পেটের কাছে যেতে-ই বুঝতে পারলাম, আমি আর গর্ভবতী নই।
Ceara’s Assis Chateaubriand maternity hospital-এর নার্স মিস সা বলেন, ২৩ দিন পরে মা ও তার সন্তান সুস্থভাবে হসপিটাল থেকে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিতে পেরেছে। আমরা কখনও আশাই করতে পারিনি, এত অল্প সময়ের মধ্যে মিসেস দ্য সিলভা স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে পারবেন।
Article: Daily Mail Uk
আরও পড়ুন: তিতলি চলে গেলেও বাংলার ঘরে ঘরে রেখে গেল চিহ্ন: সদ্যজাতের নাম রাখার হিড়িক

Check Also

ইটালি

বেডসিন পোস্ট করে উপ-প্রধানমন্ত্রীর গার্লফ্রেন্ড বিচ্ছেদের খবর দিলেন

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: ইটালির উপ-প্রধানমন্ত্রী মাতিও সালভিনি ও টিভি স্টার এলিজা ইজোআর্দির মধ্যে বিচ্ছেদ …