Home / শরীর স্বাস্থ্য / ওজন কমানোর উপায় ডায়েট চার্ট – ওজন কমানোর ডায়েট

ওজন কমানোর উপায় ডায়েট চার্ট – ওজন কমানোর ডায়েট

ওজন কমানোর উপায় ডায়েট চার্ট – ওজন কমানোর ডায়েট – বর্তমান সময়ে সবাই কমবেশি স্বাস্থ্য সচেতন তবে যাদের ওজন বেশি তারা নানা রকম কসরত করেও ওজন কমাতে পারেন না।অনেক চেষ্টা করেও ওজন কমানো যায় না আর এতে অনেকেই দুশ্চিন্তায় পড়ে যায়। আজকে আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি ওজন কমানোর উপায় ডায়েট চার্ট – ওজন কমানোর ডায়েট।

শরীর ফিট রাখতে এবং ওজন কমাতে আমরা নিজেরাই ওজন কমানোর টিপস নিজেরাই বানিয়ে ফেলি। আবার অনেকেই নিজেদের পছন্দের ডায়েটিশিয়ান দেখিয়ে সেই অনুযায়ী খাবার খাই কিন্তু এত টাকা খরচ করে এবং এত খাবার না খেয়েও weight loss করতে পারে।

ওজন কমানোর উপায় ডায়েট চার্ট

ওজন কমানোর ডায়েট

ওটমিল

সেই ক্ষেত্রে ডায়েটে রাখতে হবে এমন কিছু খাবার যা খুব সহজে আপনার শরীরের ফেট গলিয়ে দিবে। আবার সেই সব খাবার হবে সুস্বাদু। আর তেমন একটি খাবার হচ্ছে ওটমিল। রিসার্স বলছে যারা তিনবার বা তার থেকে বেশি ওটস খান তাদের পেটের চর্বি ১০% কম হয় সাধারন মানুষের থেকে।তাই সকালে, দুপুরে এবং রাতের খাবারে একবার কিংবা দুইবার ওটমিল খেতে পারেন।

আরো পড়ুনঃ উচ্চতা অনুসারে আপনার ওজন ঠিক কতো হওয়া উচিত?

ডার্ক চকলেট

আমরা ভাবি চকলেট এমন একটি খাবার যা কোনদিন ডায়েটে থাকতে পারেনা। আর এই জন্যই যাদের ওজন স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি তারা হয়ত চকলেটের ধারে কাছেও ঘেষেন না। কিন্তু বাজারের সাধারন চকলেট তা আমাদের ওজন কমানোর কোন কাজে
আসেনা। এর জন্য খেতে হবে ডার্ক চকলেট কারন যেসব চকলেটে ৭০% এর বেশি কোকো আছে সেইসব চকলেটকে ডার্ক চকলেত ধরা হয়।এতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা মানব শরিরের চর্বি কমিয়ে এনে দিবে সুন্দর একটি ফিগার।

ডিম

অনেকেই মনে করে ডিম এমন একটা খাবার যা খেলে ওজন বাড়ে। কিন্তু ডাক্তারেরা ডায়েটে ডিম রাখতে বলে। কারন এটা এমন একটা খাবার যা পেটের ফেট কমাতে যাদুর মতো কাজ কর। সিদ্ধ করে কিংবা হাফ বয়েল করে খেতে পারেন রোজ সকালে। কয়টা করে খাবেন সেটার জন্য ডায়েটিশিয়ান এর সঙ্গে কথা বলে জেনে নিতে পারেন।তবে শুরুতেই একটা বেশি ডিম না খাওয়ায় ভালো। ডিমে মানব শরীরের ফেট কমাতে সাহায্য করে।

আরো জানুনঃ গরমের দিনে আখের রসের গুণাগুণ আপনাকে সতেজ ও সুস্থ রাখবেই

নারকেল তেল

অনেকেই হয়ত নারকেল তেলের নাম শুনে অবাক হবেন কিন্তু আপনার কাছে অদ্ভুত লাগলেও মাথায় ব্যবহার করা এই তেল পেটের চর্বি গলাতে সাহায্য করে খুব দ্রুত। চাইলেই আপনি নারকেল তেল দিয়ে রান্না করতে পারেন কিংবা সকালে ঘুম থেকে উঠে
১ চা চামচ নারকেল তেল খেয়ে নিতে পারেন।

প্রথম প্রথম এর স্বাদ আর গন্ধ আপনার ভালো নাও লাগতে পারে। কিন্তু মানুষ অভ্যাসের দাস তাই পেটের নিচের অংশে স্থুলতার সমস্যা থাকলে তাতে দ্রুত কাজ করবে এই তেল।

আমাদের লেখা ওজন কমানোর উপায় ডায়েট চার্ট – ওজন কমানোর ডায়েট আপনার কেমন লেগেছে তা আমাদের কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না। ওজন কমানোর সহজ উপায় কিংবা ওজন কমানোর ঘরোয়া উপায় সম্পর্কে জানতে প্রতিদিন ভিজিট করুন আর আমাদের ফেসবুক পেইজে চোখ রাখুন।

Check Also

যক্ষ্মা

টিবি বা যক্ষ্মার উৎপত্তি কোথায় জানেন কি? ১২০০ খ্রীষ্টাব্দে এই দেশ থেকে সারা পৃথিবীতে ছড়ায়

সবার খবর, হেল্থ ডেস্ক: টিবি অসুখের কথা আমরা সকলেই জানি বা পাড়া প্রতিবেশিকে এই রোগে …