Breaking News
Home / জাতীয় / শিক্ষকের ধর্ষণে মা ৭ম শ্রেনির ছাত্রী, চাচার ধর্ষণে মা ভাতিজি

শিক্ষকের ধর্ষণে মা ৭ম শ্রেনির ছাত্রী, চাচার ধর্ষণে মা ভাতিজি

কুমিল্লায় ধর্ষণ – শিক্ষক কিংবা নিকট আত্মীয় কারো কাছেই কি নিরাপত্তা নয় নারীরা?কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে কোচিং সেন্টারের শিক্ষকের ধর্ষনে মা হয়েছে ৭ম শ্রেনির ছাত্রী আর নাঙ্গলকোটে চাচার ধর্ষনে মা হয়েছে ভাতিজি।কুমিল্লায় ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের ঘটনা বাড়ায় উদ্বেগ বাড়ছে অভিভাবকদের।

বিশ্লেষকদের মতে ভয়ভীতি আর বিচারের দীর্ঘসূত্রতার কারনে বেশিরভাগ ঘটনা আপোষে মিটিয়ে নিচ্ছে ভুক্তভোগী পরিবারগুলো।

বাড়িতে নতুন অতিথি আসলেও খুশির লেশমাত্র নেয় পরিবারটিতে।শিশু সন্তানের অনাগত ভবিষ্যত নিয়ে রাজ্যের দুশ্চিন্তা।কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে দেড় মাস আগে মা হয়েছে ৭ম শ্রেনির এক কিশোরী।অভিযোগ কোচিং সেন্টারে এক শিক্ষক কৌশলে মেয়েটিকে আটকে রেখে ধর্ষন করে।

স্থানীয় শালিস বৈঠকে সমাধান না পেয়ে আদালতে দারস্থ হয়েছে ভুক্তভোগী পরিবারটি।ঘটনা জানাজানির পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত তারেকুর রহমান।

নাঙ্গলকোটে ধর্ষন মামলায় কারাগার থেকে জামিনে বের হওয়ার পর চাচার সংবর্ধনার ভিডিও ভাইরাল হলে সমালোচনার ঝড় উঠে।সম্প্রতি মা হয়েছে ওই কিশোরী। ডিএনএ পরীক্ষায় সম্পৃক্ততা মিলেছে চাচার।

আরো পড়ুনঃ একবছর আগে ওই গৃহবধূকে দু’দফা ধর্ষণ করে দেলোয়ার

পুলিশ সুপার কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী গেল দুইমাসে কুমিল্লায় ধর্ষনের মামলা হয়েছে ৩৪ টি।বিচারের বিচারের দীর্ঘসূত্রতার কারনে নারীর প্রতি সহিংসতা বাড়ছে বলে মনে করেন আইনজীবী সমাজ।

সূত্রঃ যমুনা টিভি

Check Also

গৃহবধূকে নির্যাতনের ঘটনা

গৃহবধূকে নির্যাতনের ঘটনা তে নতুন মোড়, বাবাকে দায়ী করলেন মেয়ে (ভিডিও)

গৃহবধূকে নির্যাতনের ঘটনা – নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারী নির্যাতনের ঘটনা তে ভুক্তভোগীর স্বামীও জড়িত বলে অভিযোগ …