প্রাকৃতিক দুর্যোগে ব্যাতিব্যাস্ত মায়ানমার: একই সাথে ভূমিধস এবং বন্যা

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে সারা বিশ্বের চাপের মুখে মায়ানমার তার মাঝে আবার দেখা দিল ভয়ানক প্রাকৃতিক দুর্যোগ। দুই সাড়াষি চাপে মায়ানমার যেন ব্যাতিব্যাস্ত। একদিকে ভূমিধস অন্যদিকে আকস্মিক বন্যা।
মায়ানমার
মায়ানমারের পাঁচটি শহর ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়েছে বলে জানান তাদের দেশের সংবাদ মাধ্যমগুলি। বন্যার কবলে পড়া শহরগুলি হচ্ছে মাওলামাইন, মুডোন, থানবাযায়েট, ইয়ে এবং পুং। কদিন ধরে মায়ানমারের এই শহরগুলিতে টানা বর্ষন হচ্ছে। আকস্মিক এই বর্ষনের ফলেই দেখা দিয়েছে বন্যা।
মায়ানমার সরকার
শুধু কি বন্যা সাথে আছে ঝড়। বন্যা এবং ঝড়ের কবলে ক্ষতি সাধন হয়েছে অনেক বাড়ি ঘরের। মায়ানমার সরকারের পক্ষ থেকে ৪২ টি ত্রাণ শিবির খোলা হয় বন্যায় সর্বস্ব হারানো মানুষদের জন্যে। সেখানে ৮,২৬৩ জন আশ্রয় নেয় বলে খবরে প্রকাশ। বন্যা কবলিত অঞ্চলের একজন জানায় প্রায় টানা ২৪ ঘন্টা বৃষ্টির হয় সোমবার। এত ভারী বৃষ্টির প্রকপে পড়ে বাড়ি ঘর প্রায় তলিয়ে যাওয়ার যোগাড়া। সংবাদ মাধ্যম থেকে জানা যায় জল বাড়ির ছয় ফুট পর্যন্ত উঠে এসেছে।
মায়ানমারে বন্যা
টানা বৃষ্টির ফলে অন্যদিকে আরেক বিপদ যে অপেক্ষা করছিল তা হয়তো আঁচ করতে পারেনি মায়ানমার সরকার। উত্তর প্রান্তের রাজ্য কাচিনের ফাকান্তে টাউনশিপ ডেভেলপমেন্ট অ্যাফেয়ার্স কমিটি’র স্টাফ কোয়ার্টার্সে ভূমিধসে প্রায় ছয় জন প্রাণ হারান। তথ্য ও জনসংযোগ বিভাগ জানায়, শুক্রবার মাও-ওয়ান ওয়ার্ডের পান্টিন ব্রিজের কাছে এই ভূমিধস হয়েছে।মাওগালোন, সুতাউং ও ফাপিন গ্রামেও ভূমিধস হয়েছে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ বিষয়টির ওপর নজর রেখেছে। এদিকে এই বন্যা ও ভূমিধসে মাওলামিনে বিখ্যাত প্যাগোডা কিয়াইকথালানেরও ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। ভূমিধস এবং বন্যার ফলে কতো জনের প্রান গেছে তা এখনও স্পষ্ট ভাবে জানা যায়নি।
আরও পড়ুন: এই খবর পড়ার পর যেখান সেখানে আর সেলফি তুলবে না মানুষ

Check Also

নাজীব তারাকাই

নাজীব তারাকাই মাত্র ২৯ বছর বয়সে না ফেরার দেশে

নাজীব তারাকাই মাত্র ২৯ বছর বয়সে না ফেরার দেশে।সড়ক দূর্ঘটনায় আহত হয়ে এতদিন ধরে কোমায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.