ফোনে কিমের সাথে কথা বলতে ইচ্ছুক ট্রাম্প

সবার খবর, আন্তর্জাতিক ডেস্ক: শনিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে দুই কোরিয়ার আসন্ন সংলাপে আসতে পারে ইতিবাচক উন্নয়ন। উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়ার হাতে নয় জনের বিশেষ প্রতিনিধির তথ্য হাতে তুলে দেন। দক্ষিণ কোরিয়া শত্রু হলেও ২০০২, ২০০৩ এবং ২০১৪ সালের আন্তর্জাতিক ক্রিড়া অনুষ্ঠান গুলিতে অংশ গ্রহন করে পিয়ং ইয়ং। এবং বড়ো ধরনের সাফল্য পেয়েছিলো তারা।
তাই ফেব্রুয়ারিতে সিওলে অনুষ্ঠিত শীতকালীন অলিম্পিককে কেন্দ্র করে আলোচনায় বসতে চলেছে দুই কোরিয়া। বিরল এই ঘটনার জন্য যুক্তরাস্ট্রের উদ্যোগকে বড়ো করে দেখছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। উত্তর কোরিয়ার সর্ব্বোচ্চ নেতা কিম জং উনের সাথে ফোন আলাপেও প্রস্তুত বলে তিনি জানান। তিনি আরও বলেন উত্তর কোরিয়া শুধু ক্রিড়া ক্ষেত্রে নয় সকল বাধা অতিক্রম করে এগিয়ে যাক সেটাই আমি চাই। চিনও দুই দেশের সংলাপ নিয়ে বেশ আগ্রহী। এবং বেজিং চাচ্ছে সংলাপের মাধ্যমেই সমস্ত ঝামেলায় ইতি টানতে। এই ঐতিহাসিক আলোচনার সাফল্য কামনা করে দক্ষিণ কোরিয়া জানিয়েছেন সংলাপের সমস্ত পথ সব সময় খোলা রাখবে তারা।
আরও খবর: এমন হট ছবি কোনো প্রেসিডেন্টের স্ত্রীর নেই

Check Also

নাজীব তারাকাই

নাজীব তারাকাই মাত্র ২৯ বছর বয়সে না ফেরার দেশে

নাজীব তারাকাই মাত্র ২৯ বছর বয়সে না ফেরার দেশে।সড়ক দূর্ঘটনায় আহত হয়ে এতদিন ধরে কোমায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.