একবছর আগে ওই গৃহবধূকে দু’দফা ধর্ষণ করে দেলোয়ার

বিবস্ত্র করে নির্যাতন – নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের এক বছর আগেও দুইদফা ধর্ষণ করেছিলো বাহিনী প্রধান দেলোয়ার।ভুক্তভোগীর করা দুটি মামলার কোনটিতেই নাম নেই তার।নির্যাতিত নারীর সাথে কথা বলে এইসব তথ্য জানিয়েছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন।আজ দেলোয়ারকে অস্ত্র মামলায় রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।এছাড়া প্রধান আসামী বাধল ও সোহাগও পুলিশের রিমান্ডে।

বেগমগঞ্জে বিবিস্ত্র করে নারী নির্যাতন ও ভিডিও ফেসবুকে ছড়ানোর ঘটনায় মামলা করা হয় দুটি।ভিকটেমের করা পর্ণগ্রাফি ও নারী নির্যাতনের মামলার কোনটির এজহারে এমনকি ২২ ধারার জবনবন্ধিতে নাম নেই বাহিনী প্রধান দেলওয়ার হোসেনের।

ভিকটিমের সাথে কথা বলার পর মানবাধিকার কমিশন ব্রিফিংয়ে জানায় দুই দফায় ওই নারীকে ধর্ষণ করে দেলয়ার।তার বিরুদ্ধে আলাদা ধর্ষন মামলা দায়ের হবে বলে জানিয়েছেন তদন্ত কমিটির প্রধান।

একটি অস্ত্র মামলায় নারায়ণগঞ্জে গ্রেফতার দেলোয়ারকে বিকেলে আদালতে তোলা হয়।পুলিশ তিনদিনের রিমান্ড আবেদন করলে বিচারক ফাহমিদা খাতুন দুইদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এইদিকে গ্রেফতার প্রধান আসামী বাদল ও সোহাগকে আদালতে হাজির করে রিমান্ডের আবেদন করেছে পুলিশ।

আরো পড়ুনঃ নোয়াখালীর ধর্ষণ ঘটনার মতো গোপালগঞ্জে ধর্ষন ও ভিডিও ধারন

চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডি আই জি জানিয়েছেন মামলাগুলো সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত চলছে।ভিকটিমের করা দুটি মামলায় আজহার ভুক্ত আসামী ৯জন অজ্ঞাত আরো ১০-১২ জন কে আসামী হিসেবে উল্লেখ আছে।

সূত্রঃ যমুনা টিভি

Check Also

কুমিল্লায় ধর্ষণ

শিক্ষকের ধর্ষণে মা ৭ম শ্রেনির ছাত্রী, চাচার ধর্ষণে মা ভাতিজি

কুমিল্লায় ধর্ষণ – শিক্ষক কিংবা নিকট আত্মীয় কারো কাছেই কি নিরাপত্তা নয় নারীরা?কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে কোচিং …