ভাইরাল হওয়া ছবিগুলির সত্যতা সম্পর্কে কখনও কি জানতে চেষ্টা করেছেন? না জানলে জেনে নিন

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: আপনারা যে সব ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে দেখতে পান বা শেয়ার করেন সেগুলিতে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ফটোশপের কারসাজি থাকে। চলুন আজকে অরিজিনাল ছবিগুলি সঙ্গে মিলিয়ে দেখে নিই আসলে আমরা এতদিন পর্যন্ত যেসব ছবিগুলি নিয়ে চর্চা করতাম সেগুলি কতটুকু সত্যি।রাহুলরাহুল গান্ধীর ফেক ফটো
এই ছবির সত্যতা আপনারা নিজ চোখে দেখতে পাচ্ছেন। কখন যে রাহুল গান্ধীর হাতের টাকা মোবাইলে পরিণত হয়ে গেছে তা বোঝার উপায় নেই।
দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়ালের দ্বিতীয় ছবিটি সত্যি। কেজরিওয়ালের চরিত্রহননের জন্যে কিছু অসাধু মানুষ একটি মেয়ের ছবি জুড়ে দেন তার সঙ্গে। যা একদম মিথ্যে।
মোদি মোদি
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মুসলিমদের কাছ থেকে টুপি না পরার জন্য অনেক বিতর্ক জন্ম দিয়েছিল। কিন্তু প্রথম ছবিটি দেখে মনে হচ্ছে মোদি মুসলিমদের সংখ্যা প্রার্থনায় মগ্ন। আসলে তা কিন্তু সত্যি নয়।
যোগী যোগী
উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ টিউবল থেকে জল পান করছিলেন। এডিট করে সেখানে গরুর ছবি জুড়ে দেওয়া হয়। ছবিটি গোমূত্র পান করার দৃশ্য হিসেবে তুলে ধরা হচ্ছে। নেহরুনেহরু
দুটি ছবির মধ্যে পার্থক্য আপনারা নিজ চোখে দেখতে পাচ্ছেন। জহরলাল নেহেরু কে খারাপ দেখানোর জন্য ছবিটি ফটোশপ করা হয়েছে।
গান্ধী গান্ধী
ভারতের জাতীর পিতা মহাত্মা গান্ধী সম্পর্কে কিছু দুশ্চরিত্র মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ছবিটি প্রচার করে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করছে। আসলে মহাত্মা গান্ধী ও জওহরলাল নেহেরু আলোচনায় ব্যস্ত ছিলেন। নেহেরুর যায়গায় কখন যে মহিলাকে যোগ করা হয়েছে তা কেউ বলতে পারব না।
তাই সোশ্যাল মিডিয়াতে দেখতে পাওয়া সব ছবিই সত্যি নয়। শেয়ার করার আগে অবশ্যই তা যাচাই করে শেয়ার করুন।
আরও পড়ুন: মসজিদে নামাজ সম্পর্কিত সুপ্রিম কোর্টের রায় নিয়ে যা বললেন বাবা রামদেব

Check Also

ভালো কাজ

ভালো কাজ করলেই মিলবে খাবার, লাগবে না কোন টাকা

ভালো কাজ করলেই মিলবে খাবার, লাগবে না কোন টাকা কথাটা শুনতে অবাক করার মতো হলেও …

Leave a Reply

Your email address will not be published.