Home / শরীর স্বাস্থ্য / সিজোফ্রেনিয়া একটি মানষিক রোগ: লক্ষণগুলিও অদ্ভুত

সিজোফ্রেনিয়া একটি মানষিক রোগ: লক্ষণগুলিও অদ্ভুত

সবার খবর, হেল্থ ডেস্ক: সিজোফ্রেনিয়া একটি মানসিক অসুখ। এই আসুখটিতে যেকোনো বয়সের মানুষ আক্রান্ত হতে পারে। এই উপমহাদেশে শুধু নয় সমগ্র বিশ্বে অধিকাংশ ক্ষেত্রে যখন রোগীর ভেতর রোগটি চিহ্নিত করা যায় তখন দেখা যায় চিকিৎসা শুরু হতে বেশ বিলম্ব হয়ে গেছে। জানা যাচ্ছে, সমগ্র ভারতবর্ষে ১৪ শতাংশ মানুষ এই মানসিক ব্যধিতে আক্রান্ত। পৃথিবীতে দু’কোটির ও অধিক মানুষের এই রোগটি আছে। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, এই রোগে আক্রান্তের লক্ষণগুলি জেনে চিকিৎসা শুরু করলে রোগটিকে নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। এক্ষেত্রে মানসিক পরিবর্তন দেখলে সাইক্রিয়াটিস্ট এর কাছে যাওয়া উচিত। সিজোফ্রেনিয়া এমন একটি রোগ যে রোগটিতে আক্রান্ত রোগীর সাধারণ মানুষের তুলনায় একটু আগে মৃত্যু হয়, অর্থাৎ এ রোগে আক্রান্ত হলে আয়ু কমে যায় বলে জানাচ্ছেন psychiatrist-রা। আরো জানাচ্ছেন, রোগটির লক্ষণ ব্যক্তির ভাবনা-চিন্তায় অসামঞ্জস্য, সন্দেহপ্রবণ হয়ে ওঠা ভয় পাওয়া অবান্তর কিছুর উপর বিশ্বাস তৈরী হওয়া।
সিজোফ্রেনিয়া
কারণ ছাড়াই হাসি ও কান্না আবার মুহূর্ত চুপ করে যাওয়া। রেগে গেলে নিজের ওপর কন্ট্রোল হারিয়ে ফেলা। অকারণে রেগে যাওয়া। হঠাৎ নিজের মনের ভেতরে চলে গিয়ে চুপচাপ হয়ে যাওয়া। আবার এমনও হতে পারে কেউ সেই ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলছে না অথচ তিনি মনে করছেন কেও তার সঙ্গে কথা বলছেন ইত্যাদি লক্ষণগুলিই সিজোফ্রেনিয়ার লক্ষণ হতে পারে।

কোন ব্যক্তির ভিতরে যদি এরকম লক্ষণগুলি দেখা যায় রেগুলারলি, তবে কোনরকম বিলম্ব না করে নিকটবর্তী কোন মনোরোগ বিশেষজ্ঞের কাছে যাওয়া উচিত। কেবলমাত্র তিনি বলতে পারেন ব্যক্তিটি সিজোফ্রেনিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন কিনা।

চিকিৎসকরা আরো জানাচ্ছেন, কেউ যদি এ রোগে আক্রান্ত হন তবে এই রোগীকে পরিবারের পক্ষ থেকে নজরে রাখা উচিত। এবং নিয়মিত মনোরোগ বিশেষজ্ঞের চিকিৎসায় থাকতে হবে।
আরও পড়ুন: সন্তানের স্পর্শে কোমা থেকে ফিরে এলেন স্বাভাবিক জীবনে: এক অশ্রুসিক্ত ভালোবাসার কাহিনী

Check Also

যক্ষ্মা

টিবি বা যক্ষ্মার উৎপত্তি কোথায় জানেন কি? ১২০০ খ্রীষ্টাব্দে এই দেশ থেকে সারা পৃথিবীতে ছড়ায়

সবার খবর, হেল্থ ডেস্ক: টিবি অসুখের কথা আমরা সকলেই জানি বা পাড়া প্রতিবেশিকে এই রোগে …