স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে যৌন সম্পর্ক জীবনকে কিভাবে পাল্টে দেয় জানেন?

স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে যৌন সম্পর্ক নিয়ে অনেকে অনেক রকম মত প্রকাশ করেন। অবশ্যই এটি ঠিক যে, অনেক সময় যৌন চাহিদা ব্যক্তিবিশেষে ভিন্নতার হয়। তবে একেবারে ভুলে গেলে চলবে না, নারী পুরুষের যৌন মিলন সম্পর্কের বাঁধন শক্ত করে। মনোবিজ্ঞানীদের এই বিষয়ে মত, নারী পুরুষের যৌন সম্পর্ক তাদের সম্পর্ককে সুন্দর করে। তেমনই আবার ইরেগুলার যৌন মিলন সম্পর্ককে অনেক ক্ষেত্রেই দূরে ঠেলে দেয় বলে দেখা গেছে।
যৌনতা
মনোবিজ্ঞানীরা বলছেন, দেখা যায় অনেক পার্টনারই সম্পর্কের বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যৌন মিলন থেকে ক্রমশ দূরে চলে যান। কিংবা মাসে একবার একে অপরের সঙ্গে শারীরিক মিলনে লিপ্ত হোন। এক্ষেত্রে দেখা গেছে, দুজনের মধ্যে সম্পর্কের দূরত্ব তৈরি হয়েছে। বর্তমান সময় এত যান্ত্রিক, পার্টনারের চাহিদাকে তোয়াক্কা না করে বাড়ির পুরুষ কিংবা নারীটি ঘুমিয়ে পড়েন কাজ থেকে ঘরে ফিরেই। এটা একদিন নয়, দীর্ঘ সময় ধরে চলে। ফলে সম্পর্কগুলিতে ফাটল সৃষ্টি হয়।
রোমান্স
মনোবিজ্ঞানীরা আরো জানাচ্ছেন, আন্তর্জাতিক একটি রিসার্চে দেখা গেছে , যাঁরা নিয়মিত যৌন মিলনে লিপ্ত হন তাঁরা ব্যক্তি জীবনে অনেক সুখী, এবং স্বাচ্ছন্দে থাকেন। সপ্তাহে কিংবা মাসে একবার নয়, দুবার নয়, নিয়মিত যৌন জীবন অতিবাহিত করা উচিত। এক্ষেত্রে সঙ্গীকে কেবল স্বামী স্ত্রী কিংবা লিভ ইন পার্টনার নয়, ভালো বন্ধু হয়ে একে অপরকে বুঝতে হবে দুজন দুজনের মনের চাহিদা। কারণ সুখী দাম্পত্যের চাবিকাঠি আর অন্যান্য কিছুর থেকে অধিক পরিমানে যৌন মিলনের মধ্যে বিন্যস্ত হয়ে আছে। তবে সেই মিলন অবশ্যই চাপমুক্ত মনের হতে হবে। নারী-পুরুষের শারীরিক মিলনের সময় দুজনেরই মস্তিষ্ক থেকে ই ‘অক্সিটোনিক’ নামে এক ধরনের হরমোন ক্ষরণ হয়। এই হরমোন নারী-পুরুষকে যেমন সুন্দর করে, তেমনই মনকেও প্রফুল্ল করে দেয়। তাই মনোবিজ্ঞানীদের আরও বক্তব্য, দাম্পত্য জীবনকে সুখী ও সুন্দর করতে একে অপরের মধ্যিখানে প্রেমময় যৌন সম্পর্কের বিকল্প কিছু হতে পারে না।
আরও পড়ুন: এবার নিজের স্তন নিয়ে খোলাখুলি দীপিকা পাডুকোন

Check Also

ফটোশুট

Video: ফটোশুটের সময় মডেলের সঙ্গে শুকর যা করলো

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: বাহামাসে এমন একটি ঘটনা ঘটেছে যা দেখে সকলে আশ্চর্য হয়ে যায়। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.