Home / জাতীয় / ভারতীয় ধনীরা বিদেশে পালিয়ে যাচ্ছেন কেন?

ভারতীয় ধনীরা বিদেশে পালিয়ে যাচ্ছেন কেন?

রৌদ্র বন্দ্যোপাধ্যায়। সবার খবর: ভারত এমন একটি দেশ যে দেশ প্রাচীন কাল থেকেই বিদেশীদের কাছে বেশ আকর্ষনীয় ও কৌতূহলের কারণ। এদেশের প্রাচ্যুর্যের খবর সারা পৃথিবীর মানুষের আগ্রহের কারন ছিল। ফলে অতীতকালে এই দেশটি বহু বিদেশী দেশের আক্রমণের শিকার হয়েছে বহুবার। কিন্তু সময় বদলেছে। মানুষের জীবন যাত্রারও পরিবর্তন এসেছে। কিছু সংখ্যক মানুষের অর্থনৈতিক স্বাধীনতা তাদের জীবনযাত্রায় আমূল পরিবর্তন এনেছে। আদতে এটি বর্তমান ভারতের একটি টুকরো ছবি। কিন্তু বেশ উদ্বেক জনকও বটে।
বিগত ৩ বছরে ভারতের ১৭০০০ হাজার কোটিপতি দেশ ছেড়ে অন্য দেশে বসবাস শুরু করেছেন। যাদের কাছে ৬.৫ কোটি টাকার থেকেও বেশি সম্পত্তি আছে। দক্ষিণ আফ্রিকার গ্লোবাল ওয়ার্ল্ড মার্কেট রিসার্চ গ্রুপ ‘নিউ ওয়ার্ল্ড ওয়েল্থ’ নামে একটি এনজিও-য়ের বর্তমান রিপোর্ট অনুযায়ী ২০১৫ সালে চার হাজার, ২০১৬ সালে ছয় হাজার ও ২০১৭ সালে সাত হাজার বিত্তশালী ব্যক্তিরা ভারত ছেড়ে অন্য দেশে বসবাসের জন্যে চলে গেছেন।
ভারতীয়
মাইগ্রেসান নতুন কোনো জিনিস নয়। যখন থেকে মানুষ পৃথিবীতে এসেছে তখন থেকে এই সিস্টেম চালু রয়েছে। অর্থ ও মানুষ সতন্ত্র প্রবাহমান। দেশের গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বস্তু, কাল ও পরিস্থির ওপর বিচার করা হয়। এই রিপোর্টের ভেতর ৬.৫ কোটি যাদের সম্পত্তি, তাদের পরিসংখ্যান নিউ ওয়ার্ল্ড ওয়েল্থ দেয়নি।
গত কয়েক বছর থেকে ব্যবসা, ট্যাক্স এবং পর্যটন ক্ষেত্রের মানুষদের কাছে বিষয়টি বেশ আলোচ্যই ছিল। অনুমান করা হচ্ছে, ২-৩ লক্ষ ভারতীয় বিদেশে গিয়ে বসবাস শুরু করেছেন। আবার অনেকে বলছেন, এই সংখ্যাটি ৪-৫ লক্ষ হতে পারে। কিন্তু দেশ ছেড়ে কেন গেলেন এই সব ভারতীয়? বিষেশজ্ঞদের মতে সরকারকে কর ফাঁকি দেওয়ার জন্যে, এরা চলে গেছেন। শুধু তাই নয় ব্যবসা ও বানিজ্যও একটি বড়ো কারণ। আবার অন্য বিষেশজ্ঞরা বলেছেন, ব্যবাসায়িক ক্ষেত্রে অনেক সরকারি আইনি জটিলতা কাটাতেই এঁরা চলে গেছেন বিদেশে। তাই এখনই বলা যাবে না আসলেই এই ভারতীয়রা কর ফাঁকি দেওয়ার জন্যে যাচ্ছেন, নাকি অন্য কোনো কারণে! বিষয়টি কারও কাছেই স্পষ্ট নয়।
আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রী ভাষণে করলেন বড়ো ভুল ; রাহুল বললেন পাকোড়ার সাইড ইফেক্ট

Check Also

মিঠুন

মহান অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী গুরুতর অসুস্থ

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: মনে হচ্ছে ইদানিং বলিউডের ওপর নজর লেগে গেছে। শ্রীদেবির মৃত্যুর পর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *