Breaking News
Home / জাতীয় / সিধুর বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ! যেতে হতে পারে জেলে

সিধুর বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ! যেতে হতে পারে জেলে

সবার খবর, নিউজ ডেস্ক: পাঞ্জাবের মন্ত্রী এবং কংগ্রেস নেতা নবজত সিং সিধুর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে কপালে কষ্ট আছে একথা হলফ করে বলাই যায়। কারণ 30 বছর আগের একটি মামলা মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট চূড়ান্ত শুনানি শুরু করেছে। সিধু এই ক্ষেত্রে প্রধান অভিযুক্ত। সিধুর ওপর ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধকে হত্যার অভিযোগ আছে। এই মামলার রায়ের ওপর সিধু’র রাজনৈতিক কেরিয়ার নির্ভর করছে। সিধু’র বিরুদ্ধে যদি রায় আসে, তাহলে তার রাজনৈতিক কর্মজীবন ধ্বংস হয়ে যাবে একথা বলাই যায়।
সিধু
এই মামলার শুনানি বিচারপতি জে চেমেলেশ্বর এবং সঞ্জয় কে কওল শুরু করেছেন। সিধুর আইনজীবি তার পক্ষে সমস্ত দলিল দস্তাবেজ সুপ্রিম কোর্টে পেশ করেন। এই মামলাতে, সিধুর বন্ধু রূপান্তর সিং সন্দুও অভিযুক্ত আছে। সিনিয়র অ্যাডভোকেট আরএস ছিমা মঙ্গলবার সিধুর পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন এবং রূপান্তরের আইনজীবী আর বসাল্টও তার পক্ষে সমস্ত যুক্তি খাড়া করার চেষ্টা করেন।
এই মামলাতে, পাঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্ট ডিসেম্বর 2006 সালে রায় প্রদানের সময় তাকে এবং তার বন্ধুকে দোষী সাব্যস্ত করেছিল। তবে সিধু হাইকোর্টের সিদ্ধান্তের সাথে একমত হননি। এর পর, তিনি সুপ্রিম কোর্টে একটি আবেদনপত্র দাখিল করেন। আপীল করার পর তার শাস্তির ওপর স্থগিতাদেশ দেন মহামান্য সুপ্রীম কোর্ট।
উল্লেখ থাকে যে, ২৭ শে ডিসেম্বর 1988 সাল, নবজন্ত সিং সিধু এবং গুরনাম সিং নামে একজন বৃদ্ধ ব্যক্তি গাড়ি পার্কিংকে কেন্দ্র করে হাতা-হাতিতে জড়িয়ে পড়েন। ঘটনাস্থলে উপস্থিত গুরনাম সিংয়ের ভাইপো বলেন, সিধু গুরনামকে মেরে রাস্তায় ফেলে দেন। এবং হসপিটালে নিয়ে যাওয়ার সময় গুরনাম সিং মারা যান। যখন এই ঘটনা ঘটেছিল তখন তার বন্ধু রূপান্তর সিং-ও উপস্থিত ছিলেন।
এখন দেখার বিষয় জল কোন দিকে গড়ায়। আর একথা স্পষ্ট ভাবে বলা যায় রায়ের ওপর সিধুর রাজনৈতিক কেরিয়ার সম্পূর্ণ ভাবে নির্ভর করছে।
আরও পড়ুন: আট জন ধনী ব্যক্তির সম্পদ পৃথিবীর অর্ধেক জনগণের সম্পদের সমান

Check Also

বোহরা সম্প্রদায়

প্রথম বারের মতো প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মসজিদ উদ্বোধনে যাচ্ছেন?

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: ২০১৯ লোকসভা নির্বাচন যত সামনের দিকে এগিয়ে আসছে ততই ভারতের বিভিন্ন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *