Home / বিনোদন / অ্যাডাল্ট ফিল্ম ইন্ডাসট্রির অনেক অজানা কথা

অ্যাডাল্ট ফিল্ম ইন্ডাসট্রির অনেক অজানা কথা

সবার খবর, বিনোদন ডেস্ক: অ্যাডাল্ট ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে টাকার ছড়াছড়ি এখন। সুতরাং এই ইন্ডাসট্রি পৃথিবীর একটি বড়ো ব্যাবসার আড্ডাখানা বলায় যায়। যদিও বেশির ভাগ দেশে ব্লু বা এক্স ফিল্মকে অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। কেউ কেউ আবার ভাবে X ফিল্ম ইন্ডাসট্রির স্টারদের জীবন কতো না সুখের হয়। যদি এমন কথা কেউ ভাবে তবে সে ভুল ভাবছে। বলিউড স্টার এবং X ফিল্ম স্টারদের জীবন যাত্রায় অনেক পার্থক্য। ব্লু ফিল্মের স্টারদের সমাজ এখনও ভালো চোখে নেয়নি। তাই এখনও তারা বিশ্বের অনেক দেশে ব্রাত্য।
অ্যাডাল্ট ফিল্ম ইন্ডাসট্রি
সাধারণ মানুষের পক্ষে এখানে যাওয়া এতো সহজ কাজ নয়। যদিও এই শিল্পে অর্থ পাওয়া যায়, তবে প্রত্যেক ব্যক্তি এখানে প্রবেশ করতে পারবেন না। একটি সাক্ষাৎকারে X-ফিল্ম স্টার নিজে স্বীকার করেছেন যে, তাকে অনেক স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং বিভিন্ন ধরনের ডকুমেন্ট তৈরি করতে হয়েছে। বেশিরভাগ লোক মনে করেন, ভিডিওতে দেখা সমস্ত দৃশ্যই সত্যি। কিন্তু আপনি জানতে পারবেন না কিভাবে ক্যামেরার শিল্পের মাধ্যমে কেবল অনেকগুলি দৃশ্য ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে দেখানো হয়। যার ফলে কলাকুশলিদের সঠিক বয়স অনুমান করাও কঠিন হয়ে পড়ে।
অ্যাডাল্ট
X-ফিল্ম ইন্ডাসট্রির শিল্পীদের মূল আয়ের উৎস ইন্টারনেট। একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, বিশ্বের মোট ব্যবহৃত ইন্টারনেট ডেটার শতকরা 35 ভাগ শুধুমাত্র X ভিডিও দেখতে ব্যবহার করা হয়। অ্যাডাল্ট ইন্ডাসট্রিতে বাৎসরিক মোট আয় ১৫০০ কোটি মার্কিন ডলার প্রায়। ইন্টানেট ব্যবহার করে প্রতি সেকেন্ডে 30,000,0000 মানুষ অনলাইনে ব্লু ফিল্ম দেখেন। প্রাপ্ত বয়স্ক হবার আগেই অনেক মানুষ ব্লু ফিল্ম দেখে ফেলে। ফলে ঘটে নানান বিপত্তি। মন্ট্রিয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের মতে, ১০ বছর বয়সেই বাচ্চারা X ফিল্ম দেখে ফেলে।
এডাল্ট ফিল্মের গল্প
এই দুটি শব্দ বেশি ব্যবহৃত হয় গুগলে সার্চ করা সময়, প্রথমটি ‘MILF’ এবং অপরটী ‘Teen’. অ্যাডাল্ট ফিল্ম স্টারদের নিয়মিত সেক্সুয়্যাল ইনফেক্সাস এবং এইআইভি টেস্ট হয়। সব চাইতে বড়ো অ্যাডাল্ট নেটওয়ার্ক বিস্তার লাভ করে আছে কানাডাতে।
ব্লু ফিল্ম
২০০১ সালে ৭০ হাজার অ্যাডাল্ট ওয়েবসাইট ছিল। বর্তমান সময়ে ৪.২ মিলিয়ান ওয়েবসাইট শুধুমাত্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আছে। মেল স্টাররা ব্লু ফিল্ম স্যুটিংয়ের পূর্ব মুহুর্তে Caverject নামের একটি ইঞ্জেকাসান ব্যাবহার করে যাতে দৃশ্য ধারনের সময় erections এ কোনো সমস্যা না হয়।
এডাল্ট ফিল্ম
Pioneers ছবি দিয়েই যাত্রা শুরু অ্যাডাল্ট ফিল্ম ইন্ডাসট্রির। ছবিটি তৈরি হয় ফ্রান্সে।
আরও পড়ুন: পাকিস্তানি হট ছবি এবার উপহার দিল এক্স মিস পাকিস্তানি

Check Also

অ্যাডাল্ট স্টার

এই অ্যাডাল্ট স্টার তিন জন পুরুষকে এক সঙ্গে বিয়ে করতে যাচ্ছেন

সবার খবর, বিনোদন ডেস্ক: জাপান এবং চীনের এমন কিছু চাঞ্চল্যকর খবর মাঝে মাঝে আসে যা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *