Breaking News
Home / শরীর স্বাস্থ্য / কিভাবে ১০৮ কেজি ওজন কমলো আম্বানি পুত্রের? ট্রেইনারের বেতন শুনলেও চমকাবেন

কিভাবে ১০৮ কেজি ওজন কমলো আম্বানি পুত্রের? ট্রেইনারের বেতন শুনলেও চমকাবেন

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: মুকেশ আম্বানি পুত্র আনন্ত আম্বানিকে কে না চেনে। আমরা তাকে সাধারণত আইপিএলে চেয়ারে বসে থাকতে দেখেছি।আনন্ত আম্বানি খুবই মোটা ছিল। কিন্তু বর্তমানে তিনি সম্পূর্ণ ফিট একজন মানুষ। কিছুদিনেই শরীর থেকে 108 কেজি ওজন কমিয়ে ফেলেছেন। যা সকলের কাছেই আশ্চর্য লেগেছে। একজন মানুষ কি করে এত অল্প সময়ের মধ্যে 108 কেজি ওজন কমিয়ে ফেললেন। চলুন আসল রহস্যটা জেনে আসি এবার।
কিভাবে ওজন কমানো যায়
আনন্ত আম্বানির ওজন কমার পেছনে একজনের হাত আছে। তিনি তার ফিটনেস ট্রেইনার। যিনি দিনরাত এক করে দিয়েছিলেনআনন্ত আম্বানির ওজন কমানোর জন্যে। কে এই ফিটনেস ট্রেইনার?
আনন্ত আম্বানি ফিট হয়ে যাওয়াতে সমগ্র ভারতবর্ষের ফিটনেস ট্রেইনাররা আশ্চর্যান্বিত হয়ে ছিলেন। অনেকে ভেবেছিলেন হয়তো বিদেশী কোন ট্রেনারের কাছে আনন্ত আম্বানি ওজন কমিয়ে এসেছেন। কিন্তু তা একেবারেই নয়। যিনি ফিটনেস ট্রেইনার হিসেবে কাজ করেছিলেন তার নাম বিনোদ চান্না। ভারতেরই নাগরিক। এই ফিটনেস ট্রেনারের পরিবার একসময় এক বেলা খাবার খেয়ে কাটিয়েছেন। কিন্তু বর্তমানে ভারতে সবচাইতে এক্সপেন্সিভ ফিটনেস ট্রেইনার তিনিই। তিনি এর আগে জন আব্রাহাম, ঋতেশ দেশমুখ, শিল্পা শেঠি, আয়ুষ্মান খুরানা ও সোহেল খানের মতো সেলিব্রেটিদের সাথেও কাজ করেছেন। বিনোদ চান্না কুড়ি বছর যাবৎ বলিউড সেলিব্রেটিদের ফিটনেসের দায়িত্ব বেশ সফল ভাবেই সামলে আসছেন।
কিভাবে মেদ কমানো যায়
বিনোদ বলেন, আনন্ত আম্বানির ওজন কমানো একটা বিশাল বড়ো চ্যালেঞ্জ ছিল আমার কাছে। এমনিতেই তার ওজন অনেকটাই বেশি, তার ওপর ক্রনিক অ্যাসমাতে ভুগছিলেন তিনি। সবদিক বিবেচনা করে প্রাকৃতিক উপায়ে কিভাবে ওজন কমানো যায়, তারই প্রথমে নকশা এঁকে ফেলেছিলাম। তার জন্য আমাকে অনেক রিসার্চ করতে হয়েছিল। প্রথমে আনন্তকে আমি দিনে 5 ঘণ্টা করে এক্সারসাইজ করার একটি রুটিন ধরিয়ে দিয়েছিলাম। যার মধ্যে ছিল সকাল চারটেতে ঘুম থেকে উঠে 21 কিলোমিটার হাঁটা, সাইকেলিং করা। যোগা ও অন্যান্য এক্সারসাইজের পাশাপাশি খাবার দাবার কিছু পরিহার করতে হয় মুকেশ আম্বানির এই ফ্যাট ম্যানকে। আনন্ত আম্বানিকে ফাস্ট ফুড ছেড়ে দিয়ে পুরোদস্তুর ভেজিটেরিয়ান হয়ে যেতে হয়। 18 মাস ধরে চলে এ কঠোর নিয়ম কানুন।
বিনোদ চান্না
বর্তমানে বিনোদ চান্না 12 টি সেশন ট্রেনিং করার জন্য নিয়ে থাকেন আড়াই লক্ষ টাকার কাছাকাছি। আপনি যদি ভাবেন, তাঁকে পার্সোনাল ফিটনেস ট্রেইনার হিসেবে নিযুক্ত করবেন যদি ভেবে থাকেন, তবে মাসে গুনতে হবে 5 লক্ষ টাকা।
আরও পড়ুন: রসুনের মধ্যে লুকিয়া আছে সুস্থ থাকার চাবি-কাঠি ।

Check Also

চুল সাদা কেনো হয়

চুল সাদা হওয়ার কারণ কি? চুল কালো রাখার পদ্ধতি জেনে নিন

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: আমাদের শরীরের চুল এমন একটি অঙ্গ যা প্রতিনিয়ত বাড়তেই থাকে। সময়ের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *