Breaking News
Home / বিনোদন / এই ট্রান্সজেন্ডার প্রথম বারের মতো ভারত সুন্দরি হলেন: ছবি দেখলে সৌন্দর্য্যে মুগ্ধ হবেন

এই ট্রান্সজেন্ডার প্রথম বারের মতো ভারত সুন্দরি হলেন: ছবি দেখলে সৌন্দর্য্যে মুগ্ধ হবেন

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: ছত্রিশগড়ের বিণা শিন্দ্রে দেশে প্রথম বারের মত আয়োজিত ‘ ট্রান্স বিউটি কুইন’ প্রতিযোগিতার খেতাব জিতেছেন। মুম্বাইয়ের এক হোটেলে আয়োজিত প্রতিযোগিতায় বিণা শিন্দ্রে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়ে এই খেতাব জিতেছেন। উল্লেখ্য বিণা মিস কুইন ইন্ডিয়া কম্পিটিশনে ছত্রিশগড়ের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। অনলাইনের মাধ্যমে সারাদেশের ট্রান্সজেন্ডাররা বিনা শিন্দ্রেকে নির্বাচিত করেন। ১৩ টির বেশি ভোট পেয়ে বিণা এই প্রতিযোগিতার টাইটেল নিজের নামে করে নেন। এই প্রতিযোগিতায় বিনার সাথে বিভিন্ন রাজ্যের ট্রান্সজেন্ডাররাও অংশগ্রহণ করেছিলেন।
ছত্তীশগড়ের বিণা শিন্দ্রে
২৪ বছর বয়সী বিণা শিন্দ্রে রায়পুরে থাকেন এবং সেখানেই তিনি মডেলিং ও পারসোনালিটি ডেভেলপমেন্ট-এর ট্রেনিং সম্পন্ন করেন।
বিণা শিন্দ্রে ট্রান্সজেন্ডার
র‍্যাম্পে হাটার সময় বিণাকে দেখে অনেকেই অবাক হয়ে গিয়েছিলেন। তাঁর সৌন্দর্যে সকলেই মহিত ছিলেন। বিণা এর আগেও দেশের সবচেয়ে বড় ফ্যাশন প্রতিযোগিতা ‘ল্যাকমে ফ্যাশন উইক’-এর র‍্যাম্পেও হেঁটেছেন এবং তার উজ্জ্বল উপস্থিতি সকলকে আকর্ষিত করেছিল।
বিনা
পিজেন্ট ইন্ডিয়া ট্রান্সজেন্ডারদের জন্যে এই প্রতিযোগিতা প্রথমবারের মতো জাতীয় স্তরে আয়োজন করেছে। ট্রান্সজেন্ডার কমিউনিটি আইনের দ্বারা বৈধতা পাওয়ার পর এ প্রতিযোগিতার ক্ষেত্রটা আরো অনেক বড় হয়েছে। তাই এখন বিভিন্ন রাজ্যের ট্রানস ওমান মডেলস এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছেন।
বিণা
বিণা শিন্দ্রে এই খেতাব জেতার পর তাঁর প্রতিভা সকলের সামনে প্রমাণিত করেছেন। তার ট্যালেন্ট, আত্মবিশ্বাস ও সৌন্দর্য সাধারণ মানুষের কোনো অংশে কম নয়।
বিণা শিন্দ্রে
বিণা জানান, ভবিষ্যতে তিনি প্রফেশনাল মডেলদের মতো ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করতে চান। এছাড়াও বলিউডেও তার কাজ করার পরিকল্পনা আছে। যদি বলিউডে তেমন কোনো ভালো ক্যারেকটারের অফার পান তবে অবশ্যই কাজ করবেন বলে জানান।
আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর প্রিয় পাঁচ অভিনেতা

Check Also

আলিয়া ভাট

Video: আলিয়া ভাটের হারানো বোন ফিরে পেয়েছে

সবার খবর, বিনোদন ডেস্ক: আলিয়া ভাট সাম্প্রতিককালে তার নতুন ছবি ‘গালি বয়’ নিয়ে চর্চার কেন্দ্রা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *