Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / রোহিঙ্গাদের ওপর অত্যাচারের বদলা, সুচির নাগরিকত্ব কেড়ে নিল কানাডা

রোহিঙ্গাদের ওপর অত্যাচারের বদলা, সুচির নাগরিকত্ব কেড়ে নিল কানাডা

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: মায়ানমারের নেত্রী অং সান সুচিকে দেওয়া সাম্মানিক নাগরিকত্ব কেড়ে নিল কানাডা। কানাডার হাউস অব কমোন্সে সর্বসম্মতিক্রমে অং সান সুচির নাগরিকত্ব বাতিল করার ব্যাপারে প্রস্তাব পাশ হয়ে যায়। সেই প্রস্তাব পাশ করার সময়ে সকলেই একমত হন যে রোহিঙ্গা সমস্যার মূলেই আছে মায়ানমার সরকার ও সেনাবাহিনী।
কানাডার হাউস অব কমোন্স
যেকোনো ধরনের অন্যায়ের বিরুদ্ধে কানাডা সরকার রুখে দাঁড়াবে তাও পরিষ্কার করে দেয়া হয়। কানাডার বিদেশমন্ত্রী ক্রিশ্চিয়ান ফ্রিল্যান্ড-এর প্রবক্তা অ্যাডাম অস্টিন জানান, ২০০৭ সালে ‘হাউস অফ কমোন্স’ অং সান সুচিকে কানাডার সাম্মানিক নাগরিকত্ব দিয়েছিল। তিনি বলেন, আজ হাউস অব কমোন্স-এর সকল সদস্যদের সর্বসম্মতিতে অং সান সুচির নাগরিকত্ব ফিরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর মায়ানমার সেনাবাহিনীর নির্মম নির্যাতনের সময়ও অং সান সুচি মুখে কুলুপ এঁটেছিলেন যা আন্তর্জাতিক স্তরে সুচির ভাবমূর্তি নষ্ট করেছে। অস্টিন জানান মায়ানমারের সেনাবাহিনী ও সরকার যে নির্মম হত্যাযজ্ঞে শামিল হয়েছিল তার কঠোর নিন্দা জানানো হচ্ছে কানাডার তরফে। সুচির-ও কানাডার নাগরিকত্ব বাতিল করা হচ্ছে।
অং সান সুচি
গত সপ্তাহে কানাডা, সংখ্যালঘু মুসলিম রোহিঙ্গাদের উপর অত্যাচারকে হত্যাকান্ড হিসেবেই চিহ্নিত করেছে । উল্লেখ্য, গত কয়েক মাস ধরে আন্তর্জাতিক স্তরে সুচি ও মায়ানমার সেনাবাহিনীর ব্যাপক সমালোচনা চলছে। এমন কি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক কর্তৃপক্ষও মায়ানমার সেনাবাহিনীর অফিসারদের ফেসবুক আইডি ব্লক করে দিয়েছেন।
উল্লেখ্য মায়ানমারের রাখাইন প্রদেশ সে দেশের সেনাবাহিনী বর্বর অত্যাচার করে সংখ্যালঘু মুসলিম রোহিঙ্গাদের ওপর এর প্রভাবে 10 লক্ষ রোহিঙ্গা প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়। রোহিঙ্গারা এখন বাংলাদেশের বিভিন্ন শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নিয়েছে।
আরও পড়ুন: তৃতীয় দেশ হিসেবে এস ৪০০ মিসাইল কিনতে চলেছে ভারত। মিসাইলের মারত্মক সব ক্ষমতা

Check Also

শার্ক অ্যাটাক

ক্ষুদার্থ শার্কের চেম্বারে পড়ে গেলেন এক মহিলা: ভিডিও ভাইরাল

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: বিপদ কাউকে বলে আসেনা। এমনই একটি ঘটনার সাক্ষী থাকল জিয়াং সিং-এর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *