Breaking News
Home / জাতীয় / ভালোবাসার টানে মেম সাহেব বাংলাতে

ভালোবাসার টানে মেম সাহেব বাংলাতে

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: বিগত দিনে এমন ঘটনার নজির একদম নেই তা নয়। এসব ঘটনাগুলি, প্রেমের সম্পর্কগুলি, মানবিক দিকগুলি বারবার সংবাদ মাধ্যমের সামনে এসেছে। বিগত দিনেও দেখা গেছে, প্রেম কখনো সীমান্ত মানে না, কাঁটা তার মানে না। প্রেম কখনো সমুদ্র মানে না। বয়সও মানে না। আমরা বিগত দিনেও দেখেছি, সত্যি কারের প্রেম যে কোন জাতপাতকেও বুড়ো আঙুল দেখাতে পারে।

কালনার বাসিন্দা টিংকু রায়। তিনি পেশাগতভাবে যোগা প্রশিক্ষক। পেশাগত কারণে তাঁকে দেশের বিভিন্ন জায়গাতে ছুটতে হয় প্রায় সময়। ভারতবর্ষের বিভিন্ন জায়গাতেই টিংকু বাবুর যোগা প্রশিক্ষণ কেন্দ্র আছে।আবার তিনি অনেক যোগা প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সঙ্গেও যুক্ত আছেন।
ভালোবাসার টান
তেমনই কাশির এক যোগা ক্লাশে আলাপ হয় ক্যানাডিয়ান নাগরিক ক্যাথ্ররিন ওলেনীর সঙ্গে। তারপরই তাদের সম্পর্ক গভীরতা পায় ক্রমশ। এই পুজোর ষষ্ঠীর দিন এই তরুণী সঙ্গে মালাবদল সেরে নেন যোগা প্রশিক্ষক টিংকু রায়। তারা জানান, প্রথম যেমন ক্যাথরিন ভারত ভ্রমণে আসেন তখনই তাদের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল। পরে ক্যাথরিন দেশে ফিরে যান। কিন্তু তথ্যপ্রযুক্তির যুগে আজ যে দূর আর দূর নয়, তা আরেকবার প্রমাণ করে দিলেন টিংকু ও ক্যাথরিন।

ক্যাথরিন জানান, সনাতন মতে কালনার বাড়িতে টিংকুকে বিয়ে করে খুব খুশি তিনি। আরও খুশি, যখন দেখছেন, আশ্রম পাড়ার বাসিন্দারা মেমবউ দেখতে উঁকি-ঝুঁকি দিচ্ছে প্রায়শই তাদের বাড়িতে। এই বাড়িতেই বিদেশী সমস্ত সুখ বিসর্জন দিয়ে প্রেমিক স্বামীর সঙ্গে সংসার গড়েছেন ক্যাথরিন।
আরও পড়ুন: দুঃখের দিনে আব্দুল কালামের এই তিনটি বাণী জীবন পাল্টে দিতে পারে

Check Also

গঙ্গাধর রাউত

১৪ বছরেও কাজ শেষ হচ্ছিল না, তাই বৃদ্ধ বয়সে সমস্ত সঞ্চয় দিলেন সেতু নির্মাণে!

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: ফাইল এক টেবিল থেকে অন্য টেবিল ঘোরাফেরা করে কিন্তু কাজের কাজ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *