Breaking News
Home / খেলার খবর / বিরাট কোহলি মাথা থেকে পা পর্যন্ত বিদেশি। তাহলে কি তিনি দেশ ছাড়বেন?

বিরাট কোহলি মাথা থেকে পা পর্যন্ত বিদেশি। তাহলে কি তিনি দেশ ছাড়বেন?

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: অন্য দেশের ক্রিকেটারদের পছন্দ করলে দেশ থেকে চলে যান। ভারতীয় দলের অধিনায়কের এমন মন্তব্যের পর সোশ্যাল মিডিয়াতে ব্যাপক হারে সমালোচনা হচ্ছে তাঁর। বিরাট কোহলির এই মন্তব্য সকলকে অবাক করেছে কারণ বিরাট নিজেই বিদেশি প্লেয়ার থেকে বিদেশে জিনিস ব্যবহার করেন। তাই এটা বলা ভুল হবে না যে, তার পা থেকে মাথা পর্যন্ত বিদেশী জিনিসে সাজানো। চলুন জেনে আসি বিরাট কতখানি দেশি?
বিরাটের গাড়ি
ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ক্রিকেট ছাড়াও ফুটবল ও টেনিসও বেশ পছন্দের। অবাক করার মতন ব্যাপার যে, বিরাটের প্রিয় কোন খেলোয়াড় ভারতীয় না! ফুটবলে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে পছন্দ করেন। রোনাল্ডো পর্তুগালের খেলোয়াড়। আবার তার ফেভারিট ফুটবল দল ভারত নয় জার্মানি। টেনিসে তার প্রিয় খেলোয়াড় সানিয়া মির্জা, লিয়েন্ডার পেজ বা মহেশ ভূপতি নয়। তাঁর ফেভারিট টেনিস প্লেয়ার নোভাক জোকোভিচ ও রজার ফেডেরার। যারা সার্বিয়া ও সুইজারল্যান্ড-এর বাসিন্দা। এক্ষেত্রে প্রশ্ন ওঠে, বিরাট ভারতীয় কোনো টেনিস প্লেয়ারকে পছন্দ করেন না কেন? বিরাট কোহলির দামি গাড়ি পছন্দ। সবগুলোই আবার বিদেশি। জার্মানির অডি কোম্পানির গাড়ি তিনি খুব পছন্দ করেন। বিরাট কোহলি R8, Q7, A8 -এর মত দামি গাড়ি ব্যবহার করেন বিরাট কোহলি। জার্মানি কোম্পানির জুতা ব্যবহার করেন। তার ফেভারিট জুতা আসে পূমা কোম্পানি থেকে। তাহলে এবার প্রশ্ন ওঠে ভারতীয় কোম্পানির জুতা কেন পছন্দ করেন না তিনি?
বিরাটের জল
ভারত ও ভারতের জিনিস পছন্দ করা বিরাট কোহলির জল আসে বিদেশ থেকে। তাঁর জল আসে ফ্রান্স থেকে। বিরাট কোহলি নাকি এভিয়ন কোম্পানির জল পান করেন। এক বোতল জলের দাম ৬০০ টাকা। বিরাট কোহলি যে ঘড়িটি ব্যবহার করেন সেটিও নাকি ইতালির Panerai কোম্পানির। এই কোম্পানির ঘড়ির দাম লাখ টাকার ওপরে। আর ছুটি কাটাতে পছন্দ করেন ইউরোপে। আবার বিরাট ও অনুষ্কার বিয়ে হয়েছিল ইতালির মাটিতে।
এই হচ্ছে বিরাট কোহলির দৃষ্টিতে তাঁর দেশ প্রেম।
আরও পড়ুন: বিরাট কোহলি কি ধোনির অবসর ঘোষণা করে দিলেন?

Check Also

বিজয় শংকর

চোটের কারনে বিশ্বাকপের বাইরে ভারতীয় অলরাউন্ডার! দলে যোগ দিলেন এক ওপেনার

সবার খবর, স্পোর্টস ডেস্ক: গতকাল থেকে ভারতীয় ক্রিকেট অনুরাগিদের জন্য একের পর এক দুঃসংবাদ। প্রথমে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *