Breaking News
Home / জানা অজানা / যে কারণে দেড় কোটি টাকা লটারিতে জিতেও পেলেন না টাকা

যে কারণে দেড় কোটি টাকা লটারিতে জিতেও পেলেন না টাকা

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: কথায় আছে না ‘দেনে ওয়ালা জাব দেতাহে তো ছাপ্পড় ফাড়কে দেতাহে’। পাঞ্জাবের গুরুদাসপুরের এক ছোট্ট গ্রামে বাস করেন মোহন লাল। তার সঙ্গে উপরের উক্তিটি যেন মিলেমিশে একাকার। গত বছরের নভেম্বর মাসে তিনি 1.5 কোটি টাকা লটারিতে যেতেন। তিনি যেন মুহূর্তের মধ্যেই কোটিপতি হয়ে গেছিলেন। পাড়া-প্রতিবেশীরা থাকে কোটিপতি বলেও ডাকতে শুরু করেন। কিন্তু মোহন লালের লটারিতে জেতা টাকা এখনও সে পাইনি। কিন্তু কেন?

ঘটনাটি গুরুদাসপুর জেলার দিনানগরের পাশে একটি ছোট্ট গ্রাম চুর চকের। যেখানে বসেই প্রতিদিন লোহার আলমারি বানান মোহন লাল আর স্বপ্ন দেখেন, পাঞ্জাব সরকারের দিওয়ালি বাম্পারের প্রথম পুরষ্কার জেতার। দিওয়ালি বাম্পার 2018 প্রথম পুরস্কার সত্যি সত্যিই তিনি জিতে নেন। 14 নভেম্বর 2018 তে এই বাম্পারের ড্র ঘোষণা করা হয়েছিল।
লটারি
বিবিসি হিন্দির একটি রিপোর্ট থেকে জানা যায়, মোহন লাল প্রায় 12 বছর ধরে লটারি কিনছিলেন। কিন্তু প্রত্যেকবারই তাকে হতাশ করেছে ভাগ্য দেবতা। এবার মোহন লাল দুটি লটারির টিকিট কেটে ছিলেন। যার মধ্যে একটি টিকিটে দেড় কোটি টাকার প্রথম পুরস্কার পান তিনি।2018 শেষটা তার কাছে স্বয়ং ভাগ্যদেবতা এসে হাজির। মোহন লাল বলছেন, আমি ভগবানের কাছে কৃতজ্ঞ।
কিন্তু মোহন লালের লটারির টিকিটে জেতা টাকা একাউন্টে ক্রেডিট হয়নি বলে জানালেন। কিন্তু কেন? লটারি স্টল-এর মালিক জানিয়েছেন, মোহন লাল লটারি টিকিট জমা দিয়ে গেছেন। 90 দিনের ভেতরে সমস্ত ডকুমেন্টস নিয়ে তাকে হাজির হতে হবে। কিন্তু আস্তে আস্তে সময় যেন পেরিয়ে যাচ্ছে। আসলে মোহনলালের কাছে প্যান কার্ডটি নেই। তাই এখন পর্যন্ত লটারির টিকিটের টাকা পাননি তিনি। কিন্তু এখন বড় প্রশ্ন মোহন লালের প্যান কার্ড কি 90 দিনের ভেতর সে পাবে? দেখা যাক শেষ পর্যন্ত কি হয়?
আরও পড়ুন: ৯১ লক্ষ টাকা বেতনের চাকরি! পদ খালি দুটি

Check Also

ইউপিএসসি

ষষ্ঠ শ্রেণীতে ফেল, কোনো কোচিং ছাড়াই জীবনের প্রথম পরিক্ষাতেই IAS অফিসার

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: আইএএস অফিসার রুকমণী রিয়ার রাজস্থানের বুন্দি জেলার জেলাশাসক। স্কুল জীবনে যখন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *