Home / আন্তর্জাতিক / ধর্ষকের শাস্তি দিতে ব্যস্ত হারকিউলিস! এই পর্যন্ত তিন ধর্ষক খতম

ধর্ষকের শাস্তি দিতে ব্যস্ত হারকিউলিস! এই পর্যন্ত তিন ধর্ষক খতম

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: ধর্ষকের শাস্তি কি হবে তা নিয়ে মতবিরোধ রয়েছে আইন বিশেষজ্ঞদের মধ্যে। কেউ বলেন মৃত্যুদণ্ড আবার কেউ যাবজ্জীবন। কিন্তু বাংলাদেশে পর পর তিন জন ধর্ষকের মৃতদেহ ঘিরে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। প্রত্যেকটি ধর্ষকের গায়ের ওপর একটি চিরকুট সেঁটে দেয়া হয়েছে এবং তাতে একটাই বার্তা দেয়া হয়েছে যে, আমি ধর্ষক আমার শাস্তি মৃত্যু। শেষে হারকিউলিস নামে একটি অজ্ঞাত ব্যক্তির নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

শুক্রবার রাজাপুর উপজেলায় প্রথম ধর্ষককে শাস্তি দেন এই হারকিউলিস। পরবর্তীতে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। তখনও খুব একটা আমল দিতে চাইনি প্রশাসনিক কর্তারা কিন্তু পরবর্তীতে আরও একজন ধর্ষকের লাশ পাওয়া যায় ভান্ডারিয়াতে। ধর্ষকের গলায় একটি চিরকুটে লেখা ছিল আমি পিরোজপুর ভান্ডারিয়ার… ধর্ষক রাকিব। আমি ধর্ষণের শাস্তি পেয়েছি। ধর্ষকরা সাবধান_ হারকিউলিস। এরপরই পুলিশ প্রশাসন নড়েচড়ে বসে। ওই অজ্ঞাত পরিচয়ের হারকিউলিসকে হন্যে হয়ে খুঁজছে বাংলাদেশ পুলিশ।

রাকিবের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি ভান্ডারিয়ার এক মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন। রাজাপুর থানার ওসি জানিয়েছেন, রাকিবের মাথায় গুলির চিহ্ন ছিল। তাকে সম্ভবত পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে গুলি করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, খুব শীঘ্রই এই হারকিউলিসকে আমরা খুঁজে বের করতে সক্ষম হব বলে আশা করছি।তবে স্থানীয় মানুষজন জানাচ্ছেন, প্রশাসনিক গাফিলতির কারণে মানুষ আইন নিজের হাতে তুলে নিতে বাধ্য হচ্ছে। সমাজকে ধর্ষক নামের জঞ্জাল-এর হাত থেকে মুক্ত করতেই হারকিউলিসের অভিযান বলে অনেকের মত। আবার অনেক বিশেষজ্ঞ বলছেন, আইনের স্লথ গতির কারণেই মানুষ আদালতের ওপর নির্ভর করতে পারছেন না। আবার ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতেও ব্যর্থ আদালত। সে কারণেই মানুষ অপরাধের বদলে অপরাধ করতে বাধ্য হচ্ছে।
আরও পড়ুন: ১৩ বছর বয়সে তিনবার ধর্ষিত হয়েছেন! অবশেষে পাশে পেলেন প্রেমিককে

Check Also

স্কার্ফ

মসজিদে হামলার পরেই নিউজিল্যান্ডের মহিলাদের ভেতর হিজাব পরার হিড়িক

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: গত সপ্তাহে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় ৫০ জন মানুষ …