Breaking News
Home / জাতীয় / প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ও রবার্ট বাঢরার প্রেম কাহীনি বলিউড সিনেমাকে হার মানাবে

প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ও রবার্ট বাঢরার প্রেম কাহীনি বলিউড সিনেমাকে হার মানাবে

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: গান্ধী পরিবারের মেয়ে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী সম্প্রতি প্রকাশ্য রাজনীতিতে পদার্পণ করেছেন। প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে নিয়ে কংগ্রেস শিবিরে অনেকটাই জোস ফিরে এসেছে বলে মনে হচ্ছে। রাহুল গান্ধী প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে গুরুত্বপূর্ণ পদ দিয়েছেন। তাকে দলের মহাসচিব করে উত্তরপ্রদেশের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। অপরদিকে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর স্বামী রবার্ট বাঢরা টুইট করে জানান, আমি তোমার পাশে সবসময় আছি। আজকে আপনারা জানতে পারবেন ভারতবর্ষের সবচাইতে বড় রাজনৈতিক পরিবারের মেয়ের প্রেম কাহিনী কি করে শুরু হতে হতেই শেষ হয়ে যেতে বসেছিল। নয় বছরের অপেক্ষার পর আবার যেভাবে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ও রবার্ট বাঢরা একে অপরের কাছাকাছি এসেছিল।
প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর ছোটোবেলা

প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর প্রেমের দিনগুলি

প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর প্রেমের কাহিনী মাত্র ১৩ বছর বয়সেই শুরু হয়ে গিয়েছিল। পড়াশোনার সময় প্রিয়াঙ্কা গান্ধী খুব একটা বন্ধু ছিল বলে জানা নেই। তবে রবার্ট বাঢরাকে প্রথম দেখাতেই ভালোবেসে ফেলেছিলেন তিনি। সেখান থেকেই শুরু হয় তাদের প্রেমের গল্পটি।
তারপর প্রিয়াঙ্কা গান্ধী এবং রবার্ট বাঢরার মধ্যে নয় বছর কথাবার্তা হয়নি। আশেপাশের বন্ধুরা ভেবেই নিয়েছিল হয়তো প্রিয়াঙ্কা রবার্টের প্রেম কাহিনী এখানেই শেষ হয়ে যাবে। ইন্দিরা গান্ধীকে যেদিন নির্মমভাবে হত্যা করা হয় সেদিন গান্ধী পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছিল। যেহেতু প্রিয়াঙ্কা ইন্দিরা গান্ধির সবচেয়ে কাছের মানুষ ছিলেন। স্বভাবতই সেই দুঃখ যেন প্রিয়াঙ্কার পিছু ছাড়তে চাইছিল না। এই কারণেই রবার্ট বাঢরা ও প্রিয়াঙ্কার মধ্যে নয় বছরের জন্য দূরত্ব তৈরি হয় বলে অনেকেই মনে করেন।
প্রিয়াঙ্কা

প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ও রাবার্ট বাঢরার বিয়ে

পুনরায় এক বন্ধুর কারণে দুজনের প্রেম কাহিনীতে একটি নতুন মোড় আসে। এমনিতেই বিদ্যালয়ে রবার্ট বাঢরা মেয়েদের কাছে বেশ জনপ্রিয় ছেলে হিসেবে পরিচিত। রবার্ট বাঢরও প্রথমে প্রিয়াঙ্কাকে খুব একটা গুরুত্ব দিতে চাননি। যদিও প্রিয়াঙ্কা গান্ধী রবার্ট বাঢরাকে খুব ভালবেসে ফেলেছিল। এর পরেই আস্তে আস্তে রবার্ট ও প্রিয়াঙ্কা একে অপরের খুব কাছাকাছি চলে আসতে লাগল।
এরই মাঝে দুজনের পরিবারে বিয়ে নিয়ে আলোচনা শুরু হয়ে যায়। সোনিয়া গান্ধী রাজি থাকলেও রবার্ট বাঢরার পিতা রাজেন্দ্র বাঢরা এই বিয়েতে রাজি ছিলেন না বলে রিপোর্টে প্রকাশ। বিয়ে নিয়ে ছেলে ও বাবার মধ্যে দেশ বিবাদ হয় বলে জানা গেছে। পরবর্তীতে ছেলের ইচ্ছেতেই মত দেন তার বাবা।
প্রিয়াঙ্কা গান্ধী
প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর যখন কুড়ি বছর বয়স তখন রবার্ট বাঢরার বয়স বাইশ। ১৯৯৭ সালে সেই মহাক্ষণটি তাদের জীবনে চলে আসে। রবার্ট বাঢরা ও প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর চার হাত এক হয়। বিয়ের দিনও সোনিয়া গান্ধী খুব সাদামাটাই ছিলেন। অনুষ্ঠানে মাত্র ১৫০ জন আমন্ত্রিত অতিথি ছিল। এখন পর্যন্ত রাবার্ট বাঢরা ও প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর মধ্যে ভালোবাসা প্রথম দিনের মতই অটুট।
রবার্ট বাঢরাকে নিয়ে রাজনৈতিক মহলে অনেক ধরনের সমালোচনা হয়। কিন্তু প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ও রাহুল গান্ধী, কেউ কোনোদিন রাজনীতির ময়দানে রাবার্ট বাঢরাকে টেনে আনেননি। সম্প্রতি রাবার্টকে ইডি হাজিরার নোটিশ দেয়। ইডি অফিসে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী রাবার্টকে রেখে সটান রাজনীতিতে ফিরে আসেন।
আরও পড়ুন: ভাঙা ঘরে বাস! দুবেলা খাবার জুটতো না! সে আজ জেলাশাসক

Check Also

গঙ্গাধর রাউত

১৪ বছরেও কাজ শেষ হচ্ছিল না, তাই বৃদ্ধ বয়সে সমস্ত সঞ্চয় দিলেন সেতু নির্মাণে!

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: ফাইল এক টেবিল থেকে অন্য টেবিল ঘোরাফেরা করে কিন্তু কাজের কাজ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *