Breaking News
Home / শরীর স্বাস্থ্য / ফর্সা হওয়ার সহজ উপায় | পদ্ধতিগুলি মেনে চললে সাত দিনেই হাতে নাতে ফল

ফর্সা হওয়ার সহজ উপায় | পদ্ধতিগুলি মেনে চললে সাত দিনেই হাতে নাতে ফল

সবার খবর, হেল্থ ডেস্ক: অতীতকাল থেকেই মানুষ ফর্সা হওয়ার সহজ উপায় খুঁজে এসেছে। আর নিজেকে ফর্সা দেখতে কে না চাই। সে হোক মেয়ে অথবা ছেলে। কিন্তু সব সময় তা হয়ে ওঠে না আবহাওয়া, দূষণ, সূর্যের তাপ এবং পরিচর্যার অভাবে। আস্তে আস্তে নিজের রংটা যেন কালো হয়ে ওঠে। কিন্তু নিজের প্রাকৃতিক রূপ ফুটিয়ে তোলার সহজ কিছু উপায় আছে যা এক সপ্তাহ নিয়ম করে ব্যবহার করলে এমনিতেই ত্বক ফর্সা হয়ে যাবে।
ফর্সা ত্বক

ফর্সা হওয়ার কয়েকটি সহজ উপায়

তাজা লেবুর রস ত্বকের জন্যে খুব উপকারী। মুখমন্ডলে তাজা লেবুর রস ১০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। তারপর ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। আপনি এই পদ্ধতিটি প্রতিদিন ব্যবহার করতে পারেন। লেবুর রস ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে খুব কার্যকরী। কারণ লেবুর রসে উপাদান হিসেবে উপস্থিত আছে। Bleaching. এটি আপনার রং হালকা করতে ও গভীর পর্যন্ত পরিষ্কার রাখতে খুব সাহায্য করে। লেবু আপনার ত্বকের দাগ সরাতে সাহায্য করতে পারে। লেবুর রস বেসন অথবা শসাতে দিয়ে পেস্ট বানিয়ে লাগান কিছুদিনের মধ্যে পার্থক্য নিজে বুঝতে পারবেন।
এই পদ্ধতিটি ব্যবহার করার সময় সূর্যের তাপ যেন না লাগে সেদিকে খেয়াল রাখবেন। তাছাড়াও, লেবু ব্যবহার করার সময় সতর্ক থাকুন, কারণ এটি ব্যবহারের ফলে আপনার ত্বকে জ্বালা করতে পারে। আপনার ত্বক সংবেদনশীল হলে, জল দিয়ে মিশ্রিত লেবু রস ব্যবহার করুন।

ত্বক ফর্সা করতে হলুদের ব্যবহার

হলুদ যুগ যুগ ধরে রূপ লাবণ্য ফুটিয়ে তোলার জন্য মেয়েরা ব্যবহার করে আসছে। হলুদ কাঁচা দুধের সঙ্গে নিজের মুখমন্ডলে লাগালে কিছুদিনের মধ্যে প্রাকৃতিক রূপ ফুটে উঠবে। ত্বক হবে মসৃণ। তাছাড়াও হলুদ পাউডার এবং লেবুর রস মিশিয়ে একটি প্যাক তৈরি করতে পারেন। এখন আপনার মুখমন্ডলের জন্যে তৈরি এই প্যাকটি ১৫ মিনিটের জন্য মুখে লাগান। তারপর জল দিয়ে এটি ধুয়ে ফেলুন। আপনি এই প্যাকটি দিনে দুইবার বা তিনবার ত্বকে ব্যবহার করতে পারেন।
হলদি
যার চামড়া সংবেদনশীল, তাদের এই প্যাকটি ব্যবহার না করায় ভালো। কারণ প্যাকটি ব্যবহার করলে ত্বক জ্বালা করতে পারে। এই প্যাকটি ব্যবহার করার সময় সতর্ক থাকুন যাতে আপনার জামাকাপড়ে হলুদ না লাগে।

বেসন একটি প্রাকৃতিক ও কার্যকরী ফেসপ্যাক হিসেবে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। একে দুধ, দই ও সামান্য হলুদ মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করুন। চাইলে টমেটো অথবা লেবুর রসও মিশ্রণে দিতে পারেন দেখবেন অল্প দিনেই আপনার ত্বক অনেক ফর্সা হয়ে গেছে।
আমাদের ঘরের মেয়েরা অনেকেই চন্দন কাঠ ব্যবহার করে ত্বকে। চন্দন কাঠের পেস্ট ত্বকের পক্ষে খুবই উপকারী। ত্বকে ব্যবহার করলে খুব অল্প সময়ের মধ্যেই ত্বক ফর্সা ও মসৃণ হয়ে ওঠে।
তাহলে আজ কয়েকটি সহজ উপায় শিখলেন ত্বককে ফর্সা করার। প্যাকগুলি আপনি বাড়িতে বসেই তৈরি করতে পারবেন। যদি প্যাকগুলি ব্যবহার করে উপকার পান তবে নিশ্চয় কমেন্ট করে জানাবেন।
আরও পড়ুন:রসুনের উপকারিতা আপনাকে দিতে পারে প্রতিদিন সুস্থ জীবন

Check Also

স্বপ্নদোষের উপকারিতা

স্বপ্নদোষ যেভাবে আপনার মনকে চাপমুক্ত রাখে

সবার খবর, হেল্থ ডেস্ক: ইউনিভার্সিটি অফ মন্ট্রিয়াল ২০০৭ সালে স্বপ্নদোষ নিয়ে একটি গবেষণা চালায়। এই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *