Breaking News
Home / খেলার খবর / ২ বার টাই হওয়ার পরেও ক্রিকেটের জন্মদাতা ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ ২০১৯ জিতে নিল!

২ বার টাই হওয়ার পরেও ক্রিকেটের জন্মদাতা ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ ২০১৯ জিতে নিল!

সবার খবর, স্পোর্টস ডেস্ক: টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে নিউজিল্যান্ড। ইংল্যান্ডের দুরন্ত বোলিংয়ের সামনে মার্টিন গুপ্টিল এবং হেনরি নিকোলসকে অসহায় দেখাচ্ছিল। ব্যাক্তিগত ১৯ এবং দলিয় ২৯ রানের মাথায় ক্রিস ওকসের বলে এলবিডব্লিউ হন মার্টিন গুপ্টিল। হেনরি নিকোলস ও কেন উইলিয়ামসন একটি ছোটো পার্টনারশিপ তৈরি করেন। ৫৩ বলে ৩০ রান করে আউট হয়ে যান নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। হেনরি নিকোলস ৫৫ রান করে লিয়াম প্লাঙ্কেটের বলে বোল্ড হয়ে যান। ৫৬ বলে ৪৭ রান করেন নিউজিল্যান্ডের উইকেট রক্ষক টম ল্যাথাম। নিউজিল্যান্ড ৫০ ওভারে ৮ উইকেটের বিনিময়ে ২৪১ রান করে। ইংল্যান্ডের পক্ষে ক্রিস ওকস ও লিয়াম প্লাঙ্কেট ৩ টি করে উইকেট নেন। তাছাড়াও জোফ্রা আর্চার ও মার্ক উড ১ টি করে উইকেট তুলে নেন।

২৪২ রানের লক্ষ্যমাত্রায় খেলতে নেমে ইংল্যান্ড প্রথমেই চাপে পড়ে যায়। প্রতি ম্যাচেই ঝোড়ো ইনিংস খেলা জেসন রয় ১৭ রান করে ম্যাট হেনরির শিকার হন। জনি বেয়ারস্টো ৩৩ রানের একটি ছোটো এবং গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন। জস বাটলার এবং বেন স্টোকের মাঝে একটি ম্যাচ উইনিং পার্টনারশিপ দেখা যায়। বাটলার ব্যাক্তিগত ৫৯ রানে আউট হয়ে যান। অপরদিকে বেন স্টোকস ৯৮ বলে ৮৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। নাটকীয় ভাবে ম্যাচের রূপ পরিবর্তন হয়ে যায়। যখন সকলের মনে হচ্ছিল নিউজিল্যান্ড খুব সহজেই ম্যাচটি জিতে যাবে সেই সময় শেষ ওভারের চতুর্থ বলে ওভারথ্রোয়ের কারনে ৬ রান পেয়ে যায় ইংল্যান্ড। পরবর্তী ২ বলে ৩ রানের দরকার ছিল কিন্তু ইংল্যান্ড ২ রান করে অলআউট হয়ে যায়। ফলে বিশ্বকাপ ফাইনালের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ম্যাচ টাই হয়ে যায়।
নিউজিল্যান্ড
নিউজিল্যান্ডের পক্ষে লকি ফার্গুসন এবং জিমি নেশাম তিনটি করে উইকেট তুলে নেন। তাছাড়াও কলিন ডি গ্রান্ডহোম ও ম্যাট হেনরি একটি করে উইকেট নিতে সক্ষম হন।

সুপার ওভারে বাটলার এবং বেন স্টোক ব্যাট করতে আসেন। তারা দুজনে মিলে ১৫ রান করেন। ফলে ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ ফাইনাল জিততে হলে নিউজিল্যান্ডের দরকার ১৬ রান। ইংল্যান্ডের ফাস্ট বোলার জোফ্রা আর্চার প্রথম ওভার বল করতে আসেন। নিউজিল্যান্ডের হয়ে ব্যাট করতে নামেন মার্টিন গুপ্টিল এবং জিমি নেশাম। জিমি নেশাম জোফ্রা আর্চার প্রথম তিন বলেই ১১ রান তুলতে নেন খুব সহজেই। শেষ দুই বলে নিউজিল্যান্ডের প্রয়োজন ৩ রান। কিন্তু চতুর্থ বলটি আর্চার সুন্দর ইয়র্কার করেন ফলে এক রান যোগ হয় নিউজিল্যান্ডের খাতায়। শেষ বলে দুই রান প্রয়োজন ছিল নিউজিল্যান্ডের। কিন্তু মার্টিন গুপ্টিল মাত্র এক রান করায় ম্যাচ পুনরায় টাই হয়ে যায়। ফলে দুই ইনিংস মিলিয়ে সর্বোচ্চ চার মারার কারনে ইংল্যান্ডকে ২০১৯ বিশ্বকাপের বিজয়ি দল হিসেবে বেছে নেওয়া হয়।
আরও পড়ুন: রবি শাস্ত্রী ক্রিকেট ইতিহাসের ব্যায়বহুল কোচ! টাকার অংক জানলে অবাক হবেন

Check Also

বিজয় শংকর

চোটের কারনে বিশ্বাকপের বাইরে ভারতীয় অলরাউন্ডার! দলে যোগ দিলেন এক ওপেনার

সবার খবর, স্পোর্টস ডেস্ক: গতকাল থেকে ভারতীয় ক্রিকেট অনুরাগিদের জন্য একের পর এক দুঃসংবাদ। প্রথমে …