যাদের কারণে আজ ভারতকে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজ হারতে হয়েছে

সবার খবর, স্পোর্টস ডেস্ক: ভারত এবং ইংল্যান্ডের মধ্যেকার তিনটি ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচ খেলা হয়েছে লীড্‌স স্টেডিয়ামে। যেখানে ভারত ৮ উইকেটে ইংল্যান্ডের কাছে লজ্জাজনক ভাবে হারে। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ভারতীয় দল ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে মাত্র ২৫৬ রান করে। এই হারের পর আর কোনো বাহানা চলে না। অনেকেই ভাবতে শুরু করেছেন তাহলে কি ফরম্যাট যত লম্বা হবে বিদেশের মাটিতে ভারতীয় ব্যাটিং লাইন আপ মুখ থুবড়ে পড়বে। টি-২০ এবং ওয়ানডের পর আসছে টেস্ট সিরিজ যা বিরাট কোহলিদের কাছে একটা অগ্নি পরীক্ষা বলেই মনে করা হচ্ছে। চলুন দেখে আসি কারা ব্যার্থ হওয়ার কারনে আজ তৃতীয় ওয়ানডে হারতে হলো ভারতকে।
রোহিতের ব্যাটিং
প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে ভারত রোহিতের ব্যাটিংয়ের ওপর ভর করে ইংল্যান্ডকে দুরমুশ করে দিয়েছিল। যা দেখে অনেক ভারতীয়ই আশায় বুক বেঁধেছিলেন। কিন্তু পর পর দুটি ওয়ানডে ম্যাচে রোহিত ব্যাটকে দিয়ে কথাই বলাতে পারলেন না। গত ম্যাচে রোহিত ১৮ বল খেলে মাত্র ২ রান করেছেন।
সুরেশ রা্য়না বাদ
অনেক দিন পর ভারতীয় দলে যায়গা পেয়েছিলেন সুরেশ রায়না কিন্তু সুরেষ রায়না যে প্রতিকূল পরিস্থিতে ভারতের হয়ে লম্বা ইনিংস খেলতে পারেন না তা আবার তিনি প্রমাণ করলেন। এই ম্যাচে তিনি মাত্র ৪ বলে ১ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরত গেলেন। সুরেষ রায়নার কারনেই ভারতের মিডল অর্ডার অনেকটা চাপে পড়ে যায়।
হারদিক পান্ডিয়া
হার্দিক পান্ডিয়া। ভারতের এই প্রতিশ্রুতিবান অলরাউন্ডারের ইংল্যান্ড সফর খুব একটা ভালো যাচ্ছে না। ব্যাট করতে এসে ২১ বলে মাত্র ২১ রান করেন তিনি। বল হাতেও ব্যার্থ। ৫.৩ ওভার বল করে ৩৯ রান দেন তিনি। তার ক্ষে্ত্রে প্রশ্ন একটাই থাকে আসলে পান্ডিয়া বোলিং অলরাউন্ডার না ব্যাটিং অলরাউন্ডার। কারণ ভারতবাসি দেখেছে ইরফান পাঠানের মতো একজন উচু মানের বোলারকে নষ্ট হতে। ইরফান পাঠান মূলত বোলার ছিলেন কিন্তু সাথে একটু ব্যাটটাও চালাতে পারতেন কিন্তু গ্রেগ চ্যাপেল এসে তাকে ব্যাটিংয়ে বেশি করে সুযোগ দিচ্ছিলেন ফলে তার বোলিংটাও রশাতলে গেল। আজ পর্যন্ত তিনি আর ফিরে আসতে পারেননি।
এমএস ধোনির সেই দিন যে আর নেই সেটা মোটামুটি ব্যাটিং দেখে বুঝে গেছেন নিশ্চয়। ৬৩.৬৪ স্ট্রাইক রেটে ৬৬ বলে ৪২ রান করেন মাহি। ৭-৮ বছর আগের সেই ধোনি হলে নিশ্চয় বলের চাইতে রান কম থাকতো না।
চাহাল ব্যার্থ
যুবেন্দ্র চাহাল এখনও ঠিক ঠিক বুঝে উঠতে পারছে না কি করলে উইকেট পাওয়া যাবে। যদিও এই ম্যাচে চাহাল ১০ ওভারে ৪১ রান দেন। কিন্তু আজ দরকার ছিল উইকেটের সেটা তিনি ভারতকে দিতে ব্যার্থ।
বিরাট কোহলিকে ছেড়ে দিলে মোটামুটি ভারতীয় দলের বাকিদের পারফরম্যান্স নিয়ে বলার মতো কিছু নেই। প্রায় সকলেই দায়ি ভারতের এই হারের পিছনে। অন্যদিকে ভারতকে টেস্ট সিরিজের আগে চিন্তায় ফেলে দিল জো রুটের ব্যাটিং। জো রুটের পারফরম্যান্সের কথা মাথায় রেখে এখন ভারতকে টেস্ট খেলতে নামতে হবে। যা ভারতের কাছে একটি অশনি সংকেত বলেই মনে করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা।
কি করলে ভারত বিদেশের মাটিতে সফলতা পাবে? লিখে জানান আমাদের।
Read More: ধোনির বেতন কমিয়ে বাড়ানো হলো রোহিত, শিখর এবং কোহলির বেতন

Check Also

Bangladesh VS New Zealand 2021

বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের সূচি চূড়ান্ত নিউজিল্যান্ডের

Bangladesh VS New Zealand 2021 Cricket Match: আগামী বছর বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের সূচি চূড়ান্ত করেছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.