Breaking News
Home / জানা অজানা / ভিখারি মনে করে শোরুমে ঢুকতে বাধা, পরিচয়ের পর ম্যানেজারকেও ক্ষমা চাইতে হয়

ভিখারি মনে করে শোরুমে ঢুকতে বাধা, পরিচয়ের পর ম্যানেজারকেও ক্ষমা চাইতে হয়

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: অনেক সময় আমরা কথাবার্তা, আচার আচরন এমনকি পোষাক পরিচ্ছদ দেখে মানুষটি সম্পর্কে ভুল ধারনা মনের ভেতর পোষন করে থাকি। কিন্তু সব সময় এই ধারনা ঠিক হয় না। তেমনই একটি ঘটনা ঘটেছে যেখানে এক ব্যাক্তিকে অনেকেই ভিখারি বলে মনে করছিলেন। কারণ তার পোষাক দেখে তেমনই মনে হয়েছিল। কিন্তু তিনি একজন কোটিপতি।
ভিখারির বাইক
আন্তর্জাতিক মিডিয়ার মতে, ঘটনাটি ঘটেছে থাইল্যান্ডে। একজন বৃদ্ধ ব্যাক্তি শোরুমের বাইরে দাড়িয়ে ছিলেন। সেখানে দাঁড়িয়ে তিনি শোরুমটির দিকে এক দৃষ্টিতে তাঁকিয়ে থাকেন। এই বৃদ্ধ ব্যক্তিটির নাম লুঙ্গা ডেচা। যখন তিনি শোরুমের ভেতরে প্রবেশ করতে চাইছিলেন তখন শোরুমে কর্তব্যরত সুরক্ষা গার্ড তাঁকে বাঁধা দেন। বৃদ্ধটিকে শোরুমের ভেতরে প্রবেশ করতে দেননি তারা।
বড়োলোকের বাইক
তিনি বলেন, আমি বাইক কিনতে এসেছি তাই আমাকে ভেতরে প্রবেশ করার অনুমতি দেওয়া হোক। শুধু তাই নয় তিনি শোরুমের ম্যানেজারের সঙ্গে দেখা করতে চান।

বাক বিতন্ডা এতটাই বেড়ে গেছিলো যে সেই বৃদ্ধ ব্যক্তিটিকে উপস্থিত সমস্ত কর্মীরা ঘিরে ফেলে। তাঁকে নিয়ে চলে হাসি মজা। ডেচা তবুও বারবার বলতে থাকেন আমি গাড়ি কিনতে চাই। কিন্তু স্টাফরা তবুও ডেচাকে ভেতরে প্রবেশ করতে দেননি। তিনি উপায় না দেখে চিৎকার করে বলেন, আমি ম্যানেজারের সঙ্গে দেখা করতে চাই। অবশেষে লুঙ্গা ডেচার কাছে হার মানতে বাধ্য হয় শোরুমে উপস্থিত সমস্ত কর্মীরা।
হার্লি ডেভিডসন
উল্লেখ্য, চিৎকার শুনে শোরুমের মালিক বাইরে আসেন। তিনি বৃদ্ধটিকে পছন্দের হার্লি ডেভিডসন দেখান এবং বলেন, বাইকটির দাম ১২ লক্ষ টাকা। এরপর লুঙ্গা ডেচা ১২ লক্ষ টাকা বের করে টেবিলে রেখে দেন। শোরুমের সকল কর্মী হতবাক। তারা ঠিক বুঝে উঠতে পারছিল না এখন কি করবেন। অবশেষে কর্মীরা ডেচার কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন। এই ঘটনার পরেই লুঙ্গা ডেচার ছবি ভাইরাল হয়ে যায়।
আরও পড়ুন: ২৭ বছর কোমায় থাকার পর যেভাবে জ্ঞান ফিরে পেলেন মা

Check Also

পৃথিবীর বিলাবহুল বাড়ি

পৃথিবীর সবচেয়ে বিলাসবহুল ও দামি বাড়ি : চোখ জুড়িয়ে যাবে

সবার খবর, ওয়েব ডেস্ক: প্রত্যেকে স্বপ্ন দেখে যে তাদের নিজস্ব একটি বাড়ি থাকবে। এই স্বপ্ন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *