Breaking News
Home / শরীর স্বাস্থ্য / সারাদিনের খাবার তালিকা ও দিন চর্চা কেমন হওয়া উচিত

সারাদিনের খাবার তালিকা ও দিন চর্চা কেমন হওয়া উচিত

সবার খবর, হেল্থ ডেস্ক: সারাদিনের খাবার তালিকা বা সাপ্তাহিক খাবার রুটিন কেমন হওয়া উচিত? হ্যাঁ এই নিয়ে আমাদের মনে নানান প্রশ্ন। কোন খাবার খেলে শরীর সুস্থ থাকবে? তাই নিয়ে এই ব্যস্ত জীবনে অনেক চিন্তিত থাকতে হয়। রাতের খাবারের তালিকা বা দুপুরের খাবার তালিকা কেমন হতে পারে সেই নিয়েই আজ আলোচনা করবো। চলুন আজ জেনে ফেলা যাক প্রতিদিনের খাবার রুটিন কেমন হতে পারে?

সারাদিনের খাবার তালিকা

যদি আমরা নিয়ম মেনে খাবার খাই তবে শরীর সুস্থ থাকবে। আর শরীর সুস্থ থাকলে মন সতেজ থাকবে ও কাজে মনযোগ দেওয়া যাবে। তাই সারাদিনের খাবার তালিকা পরিবর্তন করে ফেলুন। শুধু যে খাবার খেলেই শরীর সুস্থ থাকবে তা কিন্তু নয়। আপনি যদি গভীর রাত পর্যন্ত ঘুমান বা সকালে ঘুম থেকে উঠতে দেরি করেন তবে প্রতিদিনের স্বাস্থ্যকর খাবার আপনার শরীরকে সতেজ করতে পারবে না।
সকাল বা রাতে সঠিক সময়ে ঘুমতে যাওয়া
সুঠাম দেহ ও সুস্থ থাকতে সকাল ৪টা থেকে ৫:৩০টার মধ্যে ঘুম থেকে উঠতে হবে। এর ফলে যেমন আপনার শরীর সুস্থ থাকবে তেমন দিনের কাজ সম্পূর্ণ করার জন্যে অনেকটাই হাতে সময় পাওয়া যাবে। ঘুম থেকে উঠেই পারলে গরম জল খেয়ে নিতে হবে। রাতের বেলাতেও খুব তাড়াতাড়ি ঘুমাতে যাওয়ার অভ্যাস করতে হবে। রাত ৯টা থেকে ১০টার মধ্যে ঘুমানো উচিত।
ব্যায়াম বা শরীর চর্চা করা
ব্যায়াম বা শরীর চর্চাও দেহের এক ধরনের খাবার। এর ফলে দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। তাই সকাল বেলায় উঠে শরীর চর্চা করা উচিত। শরীর চর্চায় মন ও মস্তিষ্ক শান্ত থাকে। ফলে নির্ভূলভাবে দিনের কাজ করতে পারবেন আপনি।
প্রতিদিনের খাবার রুটিন
সুস্বাস্থ্য পেতে গোসল করা
সকাল বেলায় গোসল করলে শরীরের বাইরের দুর্গন্ধ দূর হয় এবং দেহে সতেজতা ফিরে আসে। সকাল বেলায় গোসল করলে সঠিকভাবে দেহে রক্ত সঞ্চালন হয়, রক্ত পরিষ্কার থাকে ও খিদেও বাড়ে।
ধর্মীয় ধ্যান
প্রতিটি ধর্মেই প্রতিদিন সকালে কিছু না কিছু নিয়ম পালন বা ধ্যান করার বিধি আছে। সেই মোতাবেক নিজ নিজ ধর্ম মেনে ঈশ্বর, আল্লাহ বা ভগবানের কাছে প্রার্থনা করা উচিত। এর ফলে আপনি কাজের সময় আত্মবিশ্বাস পাবেন সাফল্যের ব্যাপারে।
সকালের খাবার তালিকা
সকালে ঠিক মত খাবার খান না। শুধুমাত্র চা খেয়েই দুপুরের খাবার খান। এটা করবেন না। এতে করে দেহে অসুখ বাসা বাঁধবে। সকালের খাবারের তালিকায় পুষ্টিকর খাবার রাখুন। যেমন তাজা ফল, দুধ, জলে ভেজানো ছোলা ইত্যাদি। নিয়মিত অতিরিক্ত ফ্যাট, ক্যালোরি বা মসলাদার খাবার খাবেন না। এতে করে আপনি খুব সহজেই মোটা হয়ে যেতে পারেন। আমিষ জাতীয় খাবার সকাল বেলাতে খাওয়ায় মঙ্গলজনক।
সারাদিনের খাবার তালিকায় দুপুরের খাবার
দুপুরের খাবার বা লাঞ্চ ১টার সময় সেরে ফেলুন। দুপুর বেলাতে অর্ধেক পেট খাবেন। বেশি পরিমানে খেলে খাবার পাকস্থলীতে বেশি পরিমানে যাবে। ফলে খাবার হজম করতে গিয়ে দেহ ক্লান্ত হয়ে ঘুম আসবে। এতে আপনি কর্মক্ষেত্রেও অলস হিসেবে পরিচিতি লাভ করবেন। শুকনো খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। যেমন মুড়ি বা রুটির সঙ্গে দুধ বাদে চা খেতে পারেন। দুপুরের খাবার খাওয়ার পর ঘুমাবেন না। ১০-২০ মিনিট আরাম করতে পারেন।
রাতের খাবারের তালিকা
রাতের খাবারও খুব অল্প পরিমাণে খেলে ভালো হয়। কারন খাবার খাওয়ার পর আমরা ঘুমিয়ে পড়ি। এতে করে খাবার হজম হয় না। শরীরে গ্যাস বা বদহজমের মত সমস্যাগুলির সৃষ্টি হয়। রাতে বেশি খাবার খেলে খুব অল্পদিনের মধ্যেই আপনার শরীর মোটা হয়ে যেতে পারে। খাবার খাওয়ার পর ও ঘুমানোর আগে একটু হেটে নিবেন। ঘুম ভালো হবে। প্রতিদিন রাতে টক দই খেয়ে নেবেন। দেহে চর্বি জমতে দেবে না।
শরীর সুস্থ রাখতে জলের গুরুত্ব
শরীর সুস্থ রাখতে পর্যাপ্ত পরিমাণে জল পান করা উচিত। জলের অভাবে দেহে বিভিন্ন ধরনের অসুখ দেখা দিতে পারে। তাই দিনে কমপক্ষে ৪ লিটার জল পান করতে ভুলবেন না।
শরীর সুস্থ রাখতে পজিটিভ চিন্তা ভাবনা
শরীর সুস্থ রাখতে পজিটিভ চিন্তা ভাবনার বিকল্প নেই। ইতিবাচক চিন্তা ভাবনা শুধু আপনার শরীর বা মনকে সুস্থ রাখবে না বরং আপনার কর্মক্ষেত্রেও সাফল্যা এনে দিবে।
নেশা থেকে দূরে থাকুন
সিগারেট, মদ বা যেকোনো ধরনের নেশা থেকে নিজেকে বাঁচিয়ে রাখুন। আপনি সুস্থ থাকবেন। নেশা দেহের স্বাভাবিক প্রক্রিয়াকে বিঘ্নিত করে।
সারাদিনের খাবার তালিকা কেমন হবে তার একটি সূত্র মাথায় রাখবেন। ‘সকালে রাজার মত খান। দুপুরে প্রজার মত খান এবং রাতের বেলাতে ভিক্ষুকের মত খান।’ দেখবেন আপনার দেহে রোগ বাসা বাঁধতে পারবে না।
Read More: গর্ভবতী হওয়ার সহজ উপায় : এই পদ্ধতিগুলি গর্ভবতী হওয়ার জন্যে সঠিক ও সর্বোত্তম

Check Also

ফর্সা মুখ

ফর্সা হওয়ার সহজ উপায় | পদ্ধতিগুলি মেনে চললে সাত দিনেই হাতে নাতে ফল

সবার খবর, হেল্থ ডেস্ক: অতীতকাল থেকেই মানুষ ফর্সা হওয়ার সহজ উপায় খুঁজে এসেছে। আর নিজেকে …